Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মহারাষ্ট্রে করোনা আতঙ্ক, মৃত ১, সরকারি দফতর বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত উদ্ধব ঠাকরের

  • আগামী ৭ দিনের জন্য অফিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত মহারাষ্ট্রের 
  • বন্ধ হতে পারে যোগাযোগের লাইফ লাইন মুম্বহই রেলও
  • করোনাভাইরাতে আক্রান্ত হয়ে মহারাষ্ট্রে মৃত ১
  • দুবাই ভ্রমণের ইতিহাস লুকিয়ে ছিল মৃত ব্যক্তি
coronavirus outbreak government office to shut down for next 7 days at maharastra
Author
Kolkata, First Published Mar 17, 2020, 6:57 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

করোনার সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নেওয়ায় ক্রমশই উদ্বেগ বাড়ছে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের। পরিস্থিতি সামাল দিতে দফায় দফায় বৈঠকে বসেছেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা। এই পরিস্থিতিতে আগামী ৭ দিনের জন্য মহারাষ্ট্রের সমস্ত সরকারি দফতর বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেই জানিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। তবে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, প্রয়োজনীয় ও জরুরী সেবা প্রদানকারী সরকারি দফতর খোলা থাকবে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় দফায় দফায় বৈঠকে বসেছে ঠাকরে প্রশাসন। উদ্ধব ঠাকরে জানিয়েছে করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় আগামী ১৫ দিন অত্যন্ত জরুরী। 

করোনার সংক্রমণ মোকাবিলায় আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। বেশ কয়েক দিনের জন্য বন্ধ রাখা হতে পারে  মুম্বইয়ের ট্রেন চলাচল। শহর ও শহরতলীর সঙ্গে যোগাযোগের মূল মাধ্যমই হল লোকাল ট্রেন। তাই ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলে কিছুটা হলেও এড়ানো যাবে করোনার প্রকোপ। তেমনই মনে করছে সরকার। মুম্বই মেট্রো ও মনোরেলের ক্ষেত্রেও এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। তবে এখনই সেই পথে  হাঁটছে না সরকার। মহারাষ্ট্রবাসীদের অযোথা যাতায়াত এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছ। কিন্তু তারা যদি তা না মেনে চলে তাহলেই বন্ধ করে দেওয়া হবে সমস্ত পাবলিক ট্রান্সপোর্ট। রীতিমত চড়া সুরে হুঁশিয়ার দিয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে।  তবে লোকাল ট্রেনের সমস্ত কোচ রীতিমত পরিষ্কার করা হচ্ছে। বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। 

 
মঙ্গলবার সকালে মুম্বইয়ের কস্তুরবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়ে। ৬৪ বছরের ওই ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত বলেই জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।  শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ওই ব্যক্তি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তবে হাসপাতাল সূত্রে জানান হয়েছে গত ৫ মার্চ ওই ব্যক্তি দুবাই থেকে ফিরে ছিলেন। কিন্তু তিনি লুকিয়ে গিয়েছিলেন তাঁর তাঁর ভ্রমণের ইতিহাস। প্রথম দিকে কাউকেই জানতে দেননি তিনি দুবাই থেকে ফিরেছেন। এখন তাঁর স্ত্রী করোনা জীবানুকে সংক্রমিত হয়ে ভর্তি রয়েছে হাসপাতালে। মহারাষ্ট্রে আরও দুজনের শরীরে করোনার জীবানুর সন্ধান পাওয়া গেছে।


 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios