দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা আরও ধীরে ধীরে করছে। গতকালের তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও অনেক কম মানুষ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া হিসেব অনুযায়ী দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭৫ লক্ষের বেশি। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৪৬ হাজারেও বেশি মানুষ। এই সংখ্যাটা গতকালের তুলনায় অনেকটাই কম। যা নিয়ে রীতিমত স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন বিশেষজ্ঞরা। পাল্লা দিয়ে কমেছে মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় মত্যু হয়েছে ৫৭৮ জনের। 


কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা অনেকটাই কমে গেছে। অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৭ লক্ষের কিছু বেশি। যা গতকালের তুলনায় ২৩ লক্ষ বেড়েছে বলেই দাবি করা হয়েছে। সুস্থতার হারও বেড়েছে অনেকটাই। দেশে সুস্থ হয়ে যাওয়া মানুষের সংখ্যা ৬৭ লক্ষের বেশি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত দুমাস পর দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজারের নিচে এল।কারণ অগাস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের দৈনিক গড় ছিল অনেকটাই বেশি। কখনও কখনও দিনে ৯০ হাজারেও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে মারাত্মক এই ছোঁয়াচে ভাইরাসে। 

কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত রাজ্যগুলির ক্রম তালিকায় শীর্ষ রয়েছে মহারাষ্ট্র। পরের তিনটি রাজ্যই দক্ষিণের- অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্ণাটক আর তামিলনাড়ু। ওনাম উৎসবের পর নতুন করে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে কেরলে। গত ২৪ ঘণ্টায় কেরলে আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজার ২২ জন। পশ্চিমবঙ্গে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯৯২ জন। রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ২৫ হাজার ২৮।