২১ দিন বলে ৬০ দিন পেরিয়ে গেলেও করোনাকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি। এই অবস্থায় মুখ থুবড়ে পড়া অর্থনীতিকে সচল করতে করোনাভাইরাস মহামারির বিপদের মধ্যেই যোগাযোগ ব্যবস্থা ফের সচল করেছে কেন্দ্র। কিন্তু, বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় সরকারের এই পরিকল্পনা জোর ধাক্কা খেল বিদেপি শাসিত এক রাজ্য়েই। এদিন রাজ্য মন্ত্রিসভার এক বৈঠকের পর কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা জানিয়ে দিলেন মহারাষ্ট্র, গুজরাত, তামিলনাড়ু, মধ্যপ্রদেশ এবং রাজস্থান থেকে আগামী ১৫ দিনের জন্য বিমানের আগমন নিষিদ্ধ করা হল।

শুধু বিমান যোগাযোগই নয়, আগামী ১৫ দিন রেল ও সড়কপথেও মহারাষ্ট্র, গুজরাত এবং তামিলনাড়ু - এই তিন রাজ্য থেকে যাত্রীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর আগে গত ১৮ মে তারিখে এই তিন রাজ্য থেকেই যাত্রীদের প্রবেশ ৩১ মে পর্যন্ত নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। এবার সেই মেয়াদ আরও বাড়ানো হল। তবে কেউ রাজ্য ছেড়ে যেতে চাইলে তিন পথেই যেতে পারবেন।

কর্ণাটকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট ২,৪১৮ জন করোনাভাইরাস রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। তবে এর মধ্যে ৭৮১ জনই সুস্থ হয়ে গিয়েছন। আর কোভিড-১৯ রোগ জনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ৪৭ জনের।

বাইরের রাজ্যগুলির সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করলেও ৩১ মে-র পর থেকে রাজ্যের ধর্মীয় স্থানগুলি জনসাধারণের জন্য খুলে দিতে পারে ইয়েদুরাপ্পা সরকার, এমনটাই জানা যাচ্ছে। এর আগে লকডাউনের চতুর্থ দফায় কর্ণাটকের রাজ্যের ভিতরে  সরকারি এবং বেসরকারী বাস, ওলা-উবার-ট্যাক্সি, ট্রেন, সমস্ত বাজার ও দোকান খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। শুধু রবিবার দিনটি এই রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন করা হচ্ছে।