মহা প্রকোপ থেকে এবার বোধহয় রক্ষা পেল  গুজরাত ও মহারাষ্ট্রের উপকূল।  হাওয়া অফিস থেকে প্রকাশ করা নতুন বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, মহা অনেকটাই শক্তি কমিয়ে গুজরাটের ওপর আঘাত হানবে। গুজরাত, মহারাষ্ট্র, দমন ও দিউ , নগর হাভেলি থেকে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া দপ্তর মৎস্যজীবীদের সমুদ্র নামতে নিষেধ না করলেও  পরিস্থিতি নজরে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। 

 

 মৌসম ভবন থেকে জানানো হয়েছে, ৬ নভেম্বর রাতে গুজরাট উপকূলে মহা প্রবেশ করলেও ৭ তারিখ থেকে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার গুজরাট জুড়ে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হলেও, বেশ কয়েকটি অঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাতের প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। ভবননগর, সুরাট, আহমেদাবাদ সহ বিভিন্ন অঞ্চলে  ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। অন্য দিকে উত্তর মহারাষ্ট্র ও কোনকান এলাকায় মাঝারি থেকে হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। 

উত্তর আরবসাগরে সৃষ্টি হওয়া এই ঘূর্ণিঝড় ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার বেগে গুজরাট উপকূলে আঘাত হানতে পারে। গুজরাটের বেশ কিছু এলাকায় ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড় বইতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।  নগর হাভেলি, দাদরা, দমনে বুধবার সন্ধে থেকে ১২ ঘণ্টা ঝোড়ো হাওয়া বইবে বলে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে। ধীরে ধীরে  এই ঝোড়ো হাওয়া ঘণ্টার ৯০ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে বলে আবহাওয়া দপ্তর আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।  সমুদ্র এই সময় উত্তাল থাকবে বলেও হাওয়া অফিস থেকে সাবধান করে দেওয়া হয়েছে।