ফের দলিত হত্যা যোদী আদিত্যনাথের রাজ্যে। মন্দিরে প্রবেশ নিয়ে বিবাদের জেরে আমরোহা জেলায় তথাকথিত উচ্চ জাতের চার ব্যক্তি এক ১৭ বছরের দলিত কিশোরকে গুলি করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ। পুলিশ অভিযুক্ত চারদনের মধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশের অবশ্য দাবি এই হত্যার পিছনে রয়েছে অর্থ সংক্রান্ত বিবাদ।

নিহত কিশোরের নাম বিকাশ জাতাভ। গত শনিবার গভীর রাতে তাকে ঘমন্ত অবস্থাতেই গুলি করেছিল লালা চৌহান, হোরাম চৌহান, জসবীর ও ভূষণ নামে ওই এলাকারই চার তথাকথিত উচ্চ শ্রেণির ব্যক্তি। এমনই অভিযোগ করেছেন বিকাশের বাবা ওমপ্রকাশ জাতাভ। তিানি জানিয়েছেন গুলির আওয়াজে তাঁরা ছুটে এলে, ওই চার দুষ্কৃতী পালিয়েছিল। তারপর তাঁরা রক্তাক্ত অবস্থায় বিকাশকে কাছের এক হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু, ডাক্তাররা জানান, আসার পথেই তার মৃত্যু হয়েছে।

লালা এবং হোরাম চৌহানকে ইতিমধ্য়েই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাকি দুজন অবশ্য এখনও পলাতক। চারজনেই বিরুদ্ধেই হত্যার মামলা করা হয়েছে। তবে এই হত্য়ার কারণ নিয়ে অভিযোগ কারী বিকাশের বাবা এবং পুলিশের দাবি মিলছে না।

ওমপ্রকাশ জাতাভ-এর অভিযোগ, স্থানীয় এক মন্দিরে পুজো দিতে গিয়েছিলেন বিকাশ। সেই সময় দলিত হয়ে তাঁর মন্দিরে ঢোকা নিয়ে অভিযুক্ত চারজনের সঙ্গে বিকাশের একদফা বিবাদ হয়। তার জেরেই এই হত্যা। অন্যদিকে পুলিশের দাবি বিকাশের ভাই অভিয়ুক্ত চারজনের কাছ থেকে একটি আমবাগান ভাড়া  নিয়েছিলেন। এই নিয়ে বিকাশ ও অভিযুক্তদের মধ্য়ে দ্বন্দ্ব বেধেছিল। দিনকয়েক আগের ঝামেলাও এই সংক্রান্তই বলে দাবি পুলিশের। সেই থেকেই এই খুন বলে মনে করছে তারা।