দ্বিতীয় পরীক্ষাতেই সাফল্য পেল কুইক রিঅ্যাকশন সারফেস টু এয়ার ক্ষেপণাত্রের উৎক্ষেপণ। মাত্র পাঁচ দিনের মধ্যে এল এই সাফল্য। আর সেই কারণেই ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভলপমেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেন পরপর দুবার এই জাতীয় মিসাইলের সফল উৎক্ষেপনের জন্য ডিআরডিওকে অভিনন্দন। মঙ্গলবার ভূমি থেকে আকাশে উৎক্ষেপণের পর মিসাইলটি তার লক্ষ্যবস্ততে আঘাত আনতে সফল হয়েছে বলেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের বিবৃতিতে জানান হয়েছে। প্রথম পরীক্ষা করা হয়েছিল গত ১৩ নভেম্বর। 


এদিন ওড়িশার চাঁদিপুরে মিসাইলটির সফল উৎক্ষেপন করা হয়। দ্বিতীয় বারের পরীক্ষা দেখা হয়ে মিসাইলটির ওভারহেডের পারফরমেন্স খতিয়ে দেখা হয়। প্রথম পরীক্ষা দেখা হয়েছিল মিসাইলটি ব়্যাডার বা অন্য ক্ষেপণাস্ত্রকে আঘাত করতে কতটা সফল। দুটি পরীক্ষাকেই টার্গেট হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে একটি ড্রোনকে। যা একটি বিমানের পাল্টা হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছিল। 


ভারতের উত্তর ও উত্তর পূর্ব সীমান্তে চিন ও পাকিস্তান উত্তাপ বাড়াচ্ছে। সেই পরিস্থিতিতে গত তিন মাসে একাধিক অস্ত্র পরীক্ষা করেছে ডিআরডিও। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এসেছে সাফল্য। যা ভারতীয় সেনা বাহিনীর আত্মবিশ্বাস আরও বাড়িয়ে দিয়েছে বলে মনে করছে সমর বিশেষজ্ঞরা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আত্মনির্ভর ভারত গঠনের লক্ষ্যে প্রতিরক্ষাখাতেও স্বাবলমী হওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। আর সেই কাজে রীতিমত অগ্রণী ভূমিকা গ্রহণ করেছে ডিআরডিও।