ভায়রাভাইয়ের বিএমডব্লু হাঁকিয়ে বেরিয়েছিলেন নয়ডার স্টক ব্রোকার ঋষভ অরোরা। কী কুক্ষণেই রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে ছোট বাথরুম করতে নেমেছিলেন তিনি। আর সেই ফাঁকেই কিনা ৪০ লাখের বিএমডব্লু গাড়ি নিয়ে ডাকাতের দল দিল ছুট।

 

শনিবার রাতে নয়ডার সেক্টর -৯০ তে ঘটনাটি ঘটে।  আর কার্যত সঙ্গেসঙ্গেই শুরু হয় তদন্ত। জানা যায়, ঋষভ অরোরা নামে এক স্টক ব্রোকার তাঁর ভায়রাভাইয়ের থেকে ওই বিএমডব্লু নিয়ে চালাচ্ছিলেন সেদিন। বিলাসবহুল ওই গাড়িটির দাম ছিল ৪০ লাখ টাকা। রাস্তার ধারে ছোট বাথরুম করতে নামেন ঋষভ। কিছুক্ষণের মধ্য়েই মোটরবাইকে করে কয়েকজন দুষ্কৃতী এসে তাঁকে ঘিরে ফেলে। মাথার পেছনে বন্দুক ঠেকিয়ে গাড়ি নিয়ে হাওয়া হয়ে যায়।  খবর পেয়েই পুলিশ অফিসাররা ঘটনাস্থলে দৌড়ে যান।  মধ্য় নয়ডার ডেপুটি পুলিশ কমিশনার হরিশ চন্দর জানান, "যেখান থেকে বিএমডব্লু চুরি হয়ে গিয়েছিল, সেখানে আমরা পৌঁছোই। প্রাথমিকভাবে আমাদের মনে যায়, যারা হাতিয়েছে গাড়িটি তাদের মধ্য়ে কেউ ঋষভের পরিচিত ছিল। কিছু অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে এফআইআর রুজু করা হয়েছে।"

 

এদিকে দুষ্কৃতীরা মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে গাড়ি নিয়ে হাওয়া হয়ে যায় বলে যে দাবি করেছেন ওই স্টক ব্রোকার, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কারণ, ওই সময়ে তিনি বেশ রীতিমতো মদ্য়প অবস্থায় ছিলেন।

 

ডেপুটি কমিশনারকে জিজ্ঞেস করা হয়, যদি জানা যায় ওই ব্য়ক্তি মদ খেয়ে গাড়ি চালাচ্ছিলেন,তখন কী ব্য়বস্থা নেওয়া হবে?  উত্তরে তিনি জানান, "দেখুন আগে আমাদের কাজ হবে গাড়িটিকে উদ্ধার করা। তারপর আমরা বাকি সব খতিয়ে দেখব। দুষ্কৃীতের গ্রেফতার করাই আমাদের আশু লক্ষ্য়। শহরের রাস্তায় এইভাবে একটি গাড়ি চুরি হওয়ার ঘটনা কাম্য় নয়।"