দেশে ক্রমেই বাড়ছে করোনা আতঙ্ক। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। তেলেঙ্গনাতে বুধবারই ৮ জনের শরীরে পাওয়া গিয়েছে  কোভিড-১৯ ভাইরাস। এদের মধ্যে রয়েছেন ২২ বছরের এক ভারতীয় তরুণী। গত ১৫ মার্চ তিনি স্কটল্যান্ড থেকে দেশে ফেরেন। বাকি আক্রান্ত ৭ জনই ইন্দোনেশিয়ার বাসিন্দা। দিল্লি থেকে করিমনগরে এসেছিল এই দলটি। আক্রান্ত ৮ জনকেই গান্ধী হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।  ফলে রাজ্যটিতে বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৩। 

আরও পড়ুন: চিন্তা বাড়ল মুম্বইবাসীর, করোনার কারণে এবার লম্বা ছুটিতে যাচ্ছেন ডাব্বাওয়ালারা

এদিকে ইন্দোনেশিয়া থেকে এদেশে আসা ওই ৭ ব্যক্তি দিল্লি থেকে সম্পর্ক ক্রান্তি এক্সপ্রেসে করে রামাগুন্ডামে আসেন। গত ১৩ মার্চ এস-৯ কামরায় সওয়ার হয়েছিলেন তাঁরা। ওই কামরার বাকি যাত্রীদের এই পরিস্থিতিতে সজাগ থাকার পরামর্শ দিচ্ছে প্রশাসন। করোনা আতঙ্ক যেভাবে রাজধানী হায়দরাবাদ জুড়ে ছড়িয়েছে তাতে সন্ত্রস্ত সকলেই। আর করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হাত জীবাণুমুক্ত রাখা সহ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সাবান-জল বা স্যানিটাইজারের সাহায্যে নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে হাতকে। তার তাতেই প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে জীবাণুর সংক্রমণ। 

আরও পড়ুন: ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৫১, বারাণসী ও হরিদ্বারে বন্ধ হল বিখ্যাত গঙ্গা আরতি

মানুষকে হাত ধোয়া নিয়ে সজাগ করতে তৎপর হায়দরাবাদ পুলিশও। রাজপথে ট্রাফিক দাঁড় করিয়ে সেই শিক্ষায় দিচ্ছেন ট্রাফিক পুলিশের কর্তারা।  কীভাবে, কতক্ষণ ধরে হাত দিতে হবে গাড়ি দাঁড় করিয়ে চলছে সেই প্রশিক্ষণ। নেট দুনিয়ায় সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়েছে এমন একটি ভিডিও। যেখানে দেখা যাচ্ছে এক পুলিশকর্তা ও তাঁর সহকর্মীরা পথচলতি মানুষকে হাত ধোয়ার শিক্ষা দিচ্ছেন।

 

 

করোনা মোকাবিলায় অনেকে হাত ধুলেও সঠিক পদ্ধিত অবলম্বন না করায় হাতে জীবাণু থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকছে। সেই কারণে নিয়ম মেনে, প্রথমে জল দিয়ে হাত ভিজিয়ে নিতে হবে। তারপর হাতের তালুতে নিতে হবে সাবান। এক হাতের তালুর সঙ্গে অন্য হাতের তালু ঘষতে হবে। তারপর এক হাতের তালু দিয়ে অন্য হাতের উল্টো পিঠ ও আঙুলের ফাঁকে আঙুল দিয়ে ঘষতে হবে। এক হাতের আঙুলের ফাঁকে অন্য হাতের আঙুলও ঘষতে হবে। এরপর দুই হাতের পৃষ্ঠদেশ হাতের তালুর সঙ্গে ঘষতে হবে। এরপর এক হাতের মুঠোতে নিতে হবে অন্য হাতের প্রতিটি আঙুল। হাতের তালুতে অন্য হাতের আঙুলের মাথাও ঘষতে হবে। এরপর পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে মুছতে হবে হাত। সচেতনতা বাড়াতে  সেই প্রশিক্ষণই পুঙ্খনাপুঙ্খ করে দেখাচ্ছেন হায়দরাবাদ পুলিশের আধিকারিকরা।