বাংলা, অসম সহ পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনের ডঙ্কা বেজে গেছে। পাঁচটি রাজ্যে পক্ষ বিপক্ষ দুই দলের নেতারাই ভোট প্রচার শুরু করে দিয়েছেন। দিল্লি থেকেই কেন্দ্রীয় নেতা ও মন্ত্রীরা সফর করতে শুরু করেছেন। এই অবস্থায় নির্বাচনের দামামা আরও জোরে বাজিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোমবার অসমের জনভা থেকে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করলেন, নির্বাতনের দিন ঘোষণার আর তিনি যতবার সম্ভব অসমসহ ভোটমুখী রাজ্যগুলিতে সফর করবেন। তারপরই তিনি বলেন সম্ভবত মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহেই  পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনের দিন ঘোষণা করা হতে পারে। তিনি আরও বলেন সম্ভবত মার্চের প্রখম সপ্তাহে নির্বাচনী দিন ঘোষণা করা হতে পারে। যদি ৭ মার্চে ঘোষণা করা হয় তাহলে তিনি সময় বার করতে পারলেই অসম সহ অন্যান্য ভোটমুখী রাজ্যগুলিতে সফর করবেন। হাতে সময় পেলেই তিনি অসমে আসবেন বলেও স্থানীয়দের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। 

এদিন অসমের সিলপাথর এলেকায় বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই ভিড়ে ঠাসা সেই জনসভা থেকেই মোদী জানিয়েছেন বর্তমানে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের প্রচেষ্টায় দিসপুর আর খুব দূরে নয় দিল্লির। দুই সরকারই উত্তর পূর্বের সুষম উন্নয়েনের জন্য কাজ করছে বলেও দাবি করেন তিনি। 

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর চেনা ভঙ্গিতেই পূর্ববর্তী সরকারগুলির তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, অসমে প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু আগের সরকার সেদিকে কোনও নজরই দেয়নি। উন্নয়নকে অগ্রাহ্য করে ক্ষমতায় ছিল তারা। কেন্দ্রীয় সরকার ও অসম সরকার যৌথ উদ্যোগে রাজ্যের উন্নয়নের জন্য কাজ করছে। তিনি আরও বলেন কেন্দ্রীয় সরকারের মূল্য লক্ষ্যই হল সবকা সাথ সবকা বিকাশ। অসমের স্বনির্ভরতার ওপর জোর দিয়ে চিনি চা , পর্যটন, তাঁত ও হস্তশিল্প বিকাশের ওপর জোর দিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি বলেছেন, উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলির বিকাশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে অসমকে ইঞ্জিনের ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে। তিনি আরও বলেন নীতি যদি ঠিক থাকে, উদ্দেশ্য যদি সঠিক হয়  তাহলে  পরিবর্তন সহজেই আসে।