ধানজমিতে রহস্যময় একটি বস্তুকে ঘিরে শুরু হয়েছে উত্তেজনা। রহস্যময় ওই পাথরখণ্ডটি আকারে অনেকটা ফুটবলের মতো। ধানক্ষেতে এমন জিনিস পড়ে থাকতে দেখে কার্যত হতবাক চাষী ভাইরা। বিস্ময়কর এই ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের মধুবনিতে ।

প্রাথমিকভাবে রহস্যজনক ওই পাথরের টুকরোটিকে উল্কা বলেই মনে করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে গত বুধবার আচমকাই মাঠের মধ্যে কিছু একটা আছড়ে পড়তে দেখেন সেখানে উপস্থিত কৃষকরা। প্রতিদিনের মতো সেইদিনও মাঠে কাজ করছিল কৃষকরা। আচমকাই মাঠে ভারি ওই বস্তুটিকে পড়তে দেখে কার্যত হতবাক হয়ে পড়েন তাঁরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায় যে স্থানে ওই ভারী প্রস্তরখণ্ডটি পড়েছিল সেখান থেকে ধোঁয়া উঠতে দেখা যায় বলেও জানা গিয়েছে।  

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে মধুবনির জেলা শাসক শীর্ষত কপিল অশোক জানিয়েছেন, ধানক্ষেতে কাজ করার সময়েই আচমকাই ওই প্রস্তরখণ্ড সশব্দে আকাশ থেকে পড়ে। আরও জানা গিয়েছে, ঠিক যে জায়গায় প্রস্তরখণ্ডটি পড়েছে ঠিক সেই জায়গায় প্রায় ৪ ফুট গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। জেলা শাসক আরও জানিয়েছেন, উদ্ধার হওয়া ওই উল্কাপিণ্ডটির ওজন প্রায় ১৫ কিলোগ্রাম। 

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ধুলো এবং পাথরের তৈরি এইধরণের মহাজাগতিক বস্তু সাধারণত পৃথিবীতে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তবে অনেকসময়েই তা পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়ে। প্রসঙ্গত ২০১৬ সালে এমনই উল্কাপাত হয়েছিল তামিলনাড়ুতে, যার ফলে একজন বাসচালকের মৃত্যু হয়েছিল।