অবশেষে সব প্রতীক্ষার অবসান। দীর্ঘ এক বছরেরর আতঙ্কের অবসানের শুরু হল ১৬ জানুয়ারি ২০২১ থেকে। দেশ জুড়ে শুরু হল করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম টিকাকরণ। যার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার দেশের ৩০০৬টি কেন্দ্রে চলছে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ। যেখানে প্রথম পর্বে শুধু দেশের প্রথম সারির করোনা যোদ্ধা অর্থাৎ ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী ও চিকিৎসা পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত সকলকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে । 

স্বাস্থ্যকর্মীদের পাশাপাশি ভারতীয় সেনাতেও শুরু হল ভ্যাকিসন দেওয়ার প্রক্রিয়া। ভারতীয় সেনা বাহিনীর মধ্যে পূর্ব লাদাখে নিযুক্ত সেনাকর্মীদের প্রথম ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, পূর্ব লাদাখে মোট ১২ হাজার টিকা পাঠানো হয়েছে। তার মধ্যে ৪ হাজার সেনা জওয়ানকে প্রথম দফায় টিকাকরণের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে সেক্ষেত্রেও সশস্ত্র সেনা বাহিনীর আগে আর্মির সঙ্গে যুক্ত সেনার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের টিকাকরণের ক্ষেত্রে প্রথম অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। 

ভারত-চীন সম্পর্কে গত বছর একাধিকবার অবনতি হয়েছে। তৈরী হয়েছিল যুদ্ধে আবহ। পূর্ব সীমান্তে চিনের সঙ্গে একাধিকবার সংঘর্ষেও জড়িয়েছে ভারতীয় সেনা বাহিন। একে কোভিড ১৯ মহামারী পরিস্থিতি তারউপর চিনের সঙ্গে বিবাদ। সেই কারণে গত বছর অধিক সমস্যার মধ্য দিয়ে কাটাতে হয়েছিল। তাই এবার করোনা টিকা চলে আসায় কিছুটা স্বস্তিতে ভারতীয় সুরক্ষা বলয়ের কর্মীরা। সূত্রের খবর, সেনার চিকিৎসক ও স্বাস্থকর্মীদের পর ভ্যাকসিন দেওয়া হবে সশস্ত্র বাহিনীকে।