সেনা প্রধানের পদ থেকে বিদায় নিলেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত। তাঁর জায়গায় বর্ষশেষের দিন দেশের সেনা প্রধানের দায়িত্ব নিলেন জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরাভানে। তিনি হলেন দেশের আঠাশতম সেনা প্রধান। এখন থেকে ভারতের ১৩ লক্ষ সেনা বাহিনীর শীর্ষে থাকবেন নরাভানে। 

আরও পড়ুন : নাগরিকত্ব আইন বাতিল করার প্রস্তাব পাশ হল কেরল বিধানসভায়, সমর্থন বিরোধী শিবিরেরও

গত সেপ্টেম্বরেই সেনা বাহিনীর উপ-প্রধান হিসাবে নিয়োজিত হন মনোজ মুকুন্দ নরাভানে। তার আগে সেনা বাহিনীর ইন্টার্ন কম্যান্ডের প্রধান পদে ছিলেন নরাভানে। এই ইস্টার্ন কম্যান্ডই চিনের সঙ্গে ভারতের ৪০০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তের দেখভাল করে থাকে। 

আরও পড়ুন : ১০ বছরে মাত করেছে যে সব গ্যাজেট ও অ্যাপস, দেখে নিন এক ঝলকে

ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমি এবং ইন্ডিয়ান মিলিটারি অ্যাডাডেমির প্রাক্তনী মনোজ মুকুন্দ। ১৯৮০ সালে শিখ লাইট ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টের সপ্তম ব্যাটেলিয়নে যোগ দেন তিনি। গত ৩৭ বছর ধরে সেনাবাহিনীতে রয়েছেন জেনারেল মনোজ মুকুন্দ। সামলেছেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। ইন্টার্ন কম্যান্ডের  প্রধান পদে থাকার আগে জম্মু-কাশ্মীরের রাষ্ট্রীয় রাইফেলস-এর প্রধানও ছিলেন তিনি।

কর্মক্ষেত্রে দক্ষতার স্বীকৃতিস্বরূপ জেনারেল মনোজ মুকুন্দ পয়েছেন একাধিক সেনা মেডেল, বিশিষ্ট সেবা মেডেল এবং অতি বিশিষ্ট সেবা মেডেল। 

 

 

এদিকে ভারতীয় সেনা প্রধান পদে মঙ্গলবারই ছিল জেলারেল বিপিন রাওয়াতের শেষ দিন। এই উপলক্ষ্যে সাউথ ব্লকে ফেয়ারওয়েল গার্ড অফ অনার দেওয়া হয় তাঁকে। বিদায়ের আগে ভারতের জাতীয় যুদ্ধ স্মারকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাওয়াত।  বিদায়ী ভাষণে রাওয়াত বলেন, জেনারেল নরাভানে সেনা বাহিনীকে আগামী দিলে এক আলাদা উচ্চতায় নিয়ে যাবেন, সেই ব্যাপারে তিনি নিশ্চিত। 

এদিকে সেনা বাহিনীর থেকে অবসরের দিনেই দেশের প্রথম চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব নিলেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত। সেনার তিন বাহিনীর কাজে সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকেবন তিনি।