সদ্য গঠিত হয়েছে সপ্তদশ মন্ত্রীসভা। বিজেপির মাস্টারমাইন্ড অমিত শাহ-কে বড় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এই মন্ত্রীসভায়। কুর্সিতে আরোহণ করেই অ্যাকশনে নেমে পড়েছেন অমিত শাহ। বানিয়ে ফেলেছেন খতমতালিকা।

খোলসা করে বলা যাক। পুলওয়ামা কাণ্ডের পরেই কাশ্মীর নিয়ে তৎপরতা অনেক বাড়িয়ে দিয়েছিল সরকার। বারংবার জঙ্গি নিকেশের জন্যে কাশ্মীরে অপারেশন চালিয়েছে সেনা। সেনার সূত্রে খ়বর এখনও রয়ে গিয়েছে  অন্তত ২০৬ জন সেনা। মন্ত্রকের দায়িত্ব নিয়েই এদের ক্ষমতা বুঝে নিতে চাইছেন অমিত। সেনার সঙ্গে যোগযোগ করে, কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের সঙ্গে বৈঠক করে অমিত তৈরি করে ফেলেছেন একটি নিখুঁত ব্লু প্রিন্ট। সেখানে কোন কোন জঙ্গিদল এই মুহূর্তে সক্রিয়, কাদের জোর কতটা সে বিষয়ে বিশদ তথ্য রয়েছে। জইশ-ই-মহম্মদ,আল-বদরের মতো সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। উল্লেখ্য রয়েছে একটি জঙ্গি তালিকাও। কাদের নাম রয়েছে সেখানে।

নিরাপত্তা বাহিনীর পরামর্শে তৈরি এই তালিকায় রয়েছে পুলওয়ামার দায়িত্বপ্রাপ্ত হিজবুল জেলা কমান্ডর আশরদ উল হক, বারমুলার দায়িত্ব প্রাপ্ত হিজবুল জেলা কমান্ডার মেহেরাজুদ্দিনের নাম। রয়েছে জইশের কমান্ডর হাফিজ ওমর, জাহির শেখ,আল বদরের জাভেদ মাটু, এজাজ আহমেদ মালিকের নামও।

প্রসঙ্গত দায়িত্ব পেয়েই জোর কদমে কাজ শুরু করেছেন অমিত শাহ। শুধু কাশ্মীরের রাজ্যপাল নন, মঙ্গলবার আরও বেশ কয়েকজনের সঙ্গে দেখা করেছেন অমিত।  রেলমন্ত্রী পীযূশ গোয়েলের, অর্থমন্ত্রীর নির্মলা সীতারামন, নীতি আয়োগ সচিব অমিতাভ কান্তর সঙ্গেও জরুরি বিষয়ে বৈঠক সেরেছেন তিনি। এসেছে মূল্যবৃদ্ধি, পেট্রোলিয়ামের জোগানের ,সমস্যার বিষয়গুলিও।