ফের মেঘভাঙা বৃষ্টি উত্তরভারতে। উত্তরাখণ্ডের চামোলিতে মেঘভাঙা বৃষ্টির জেরে ধুয়ে মুছে গেল ঘরবাড়ি। সংবাদ সংস্থার প্রকাশিত খবর অনুসারে, মেঘ ভাঙা বৃষ্টির কারণে মৃত্যু হয়েছে ছয় জনের, যার মধ্যে রয়েছে এক শিশু ও তার মা-ও।

সূত্রের খবর, মেঘ ভাঙা বৃষ্টির কারণে জলস্রোতে বাড়ি ভেসে গিয়েছে ৩৫ বছর বয়সী রূপা দেবীর, এবং তাতেই প্রাণ হারিয়েছেন তিনি এবং তাঁর ন'মাসের শিশু সন্তান। সূত্রের খবর ঘটনাটি ঘটার সময়ে  ঘুমিয়েছিলেন রূপা দেবী। ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় উত্তরাখণ্ডের রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা পর্ষদ। সঙ্গে সঙ্গে তারা শুরু করে উদ্ধারকাজ। 

ডিস্ট্রিক্ট ডিজাসস্টার ম্যানেজমেন্ট অফিসারের তরফে জানানো হয়েছে, ঘাট এলাকার বাঞ্জাবাদ এবংলক্ষ্মী গ্রাম এলাকায় মেঘভাঙা বৃষ্টির কারণে তিনটি বাড়ি ধসে পড়ে গিয়েছে। সেই ধ্বংসস্তূপের নীচে বহু মানুষ চাপা পড়ে রয়েছে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

 

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, রাত ১টা থেকে বিদ্যুৎ চমকাতে শুরু করে। অন্যদিকে আরও একটি ঘটনায়, ভূমিধসের কবলে পড়ে মৃত্যু হয়েছে ২১ বছরের এক যুবতীর। উত্তরাখণ্ডের বেশকিছু এলাকায় গত কয়েকদিন ধরে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়াবহ আকার ধারন করেছে।