মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন নারী ও শিশু কল্যানমন্ত্রী ইমারতী দেবী  বুধবার মিড ডে মিলে  এবার থেকে ডিম পাওয়া যাবে বলে ঘোষণা করেন। এই ঘোষণার তীব্র বিরোধিতা করেছেন মধ্যপ্রদেশের বিরোধী নেতা তথা বিজেপি নেতা গোপাল ভার্গব।  বিরোধীতা করতে গিয়ে তিনি বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ছোটবেলা থেকেই খাওয়ার অভ্যাস শুরু হয়। ছোটবেলা থেকে কেউ যদি আমিষ খেতে শুরু করেন, বড় হলে সে মানুষের মাংসও খেতে পারেন।  


বুধবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপি নেতা গোপাল ভার্গব জানিয়েছেন, আমিষ খাওয়া ভারতের সনাতন সংস্কৃতির বিপক্ষে।  ভারতের সনাতন সংস্কৃতিতে মাংস খাওয়া বা আমিষ খাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আছে। যদি কোনও শিশু ছোটবেলা থেকে আমিষ খাওয়া শুরু করে, ভবিষ্যতে সে মানুষের মাংসও খেতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি। এরপর মধ্যপ্রদেশের সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, 'অপুষ্টিতে ভোগা এই সরকারের কাছ থেকে আমরা আর কী আশা করতে পারি। এরা মিড ডে মিলে ডিমের ব্যবস্থা করে। যারা ডিম খেতে চায় না, তাদের জোর করে ডিম খাওয়ানোর চেষ্টা কর
ছে এই সরকার।'

এই প্রসঙ্গে মধ্যপ্রদেশের নারী ও শিশু কল্যানমন্ত্রী ইমরারতী দেবী জানিয়েছেন, ' বিরোধীরা যা ইচ্ছে তাই বলতে পারে। এতে আমাদের কিছু করার নেই। তবে অপুষ্টিতে ভোগা শিশুদের চিকিৎসকই ডিম খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তবে ডিমকে সেভাবে আমিষ বলা যেতে পারে না। এটাকে নিরামিষ বলাই ভালো।'