কোভিড-১৯ মহামারির প্রেক্ষিতে এখনও আন্তর্জাতিক বিমান ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তারমধ্য়েই মঙ্গলবার, ভারত তার পাঁচ প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে 'এয়ার বাবল' সংযোগ শুরু করার প্রস্তাব দিয়েছে বলে জানালেন, অসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি। তবে এই পাঁচটি দেশের তালিকায় নেই পাকিস্তান।

এই এয়ার বাবল পরিষেবাই বাণিজ্যিক উড়ানকে প্রাক কোভিড মহামারির জায়গায় ফিরিয়ে নিয়ে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এয়ার বাবল অর্থাৎ বায়ুর বুদবুদ আসলে দুটি দেশের মধ্যে একটি ট্র্যাভেল করিডোর প্রতিষ্ঠা করা। এই ক্ষেত্রে যে দুটি দেশের মধ্যে এই করিডোর স্থআপন হচ্ছে, তারা একে অপরকে নিরাপদ বলে মনে করে এবং উভয় দেশের উড়ান সংস্থাগুলিকেই কোনও বিধিনিষেধ ছাড়াই যাত্রী পরিবহন করতে দেয়।

এদিন অসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী টুইট করে জানিয়েছেন, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, নেপাল এবং ভুটান - এই পাঁচ প্রতিবেশি দেশের সঙ্গে এয়ার বাবল তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে ভারত। আগামী দিনে অন্যান্য আরও অনেক দেশের সঙ্গেও এই ব্যবস্থা স্থাপনের কথা বিবেচনা করা হবে। কথা চলছে অস্ট্রেলিয়া, ইতালি, জাপান, নিউজিল্যান্ড, নাইজেরিয়া, বাহারিন, ইসরাইল, কেনিয়া, ফিলিপাইন্স, রাশিয়া, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া এবং থাইল্যান্ডের সঙ্গে।

ভারতের আন্তর্জাতিক উড়ান সংক্রান্ত কর্মকাণ্ড এখনও বন্দে ভারত মিশন-এর মধ্যেই সীমাবদ্ধ। বিভিন্ন দেশ থেকে ভারতীয় নাগরিকদদের দেশে ফিরিয়ে আনার কাজ চলছে। আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, কাতার এবং মালদ্বীপ-এর সঙ্গে ইতিমধ্যেই বিমানের যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু রয়েছে বলে জানিয়েছেন হরদীপ সিং পুরি।