১২১ বছরের মধ্যে সবথেকে উষ্ণতম হয়ে রেকর্ড তৈরি করল নতুন বছরের প্রথম মাস অর্থাৎ জানুয়ারি মাস। এই বছর জানুয়ারি মাসে ভারতের গড় তাপমাত্রা  ছিল ২২.৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ১৯১৯ সালে জানুয়ারি মাসে তাপমাত্রা ছিল ২২.১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াল। আর ২০২০ সালের জানুয়ারির গড়তাপমাত্রা ছিল ২১.৯৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আবহাওয়ার দফতরের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী উপদ্বীপ ভারতে জানুয়ারি মাসে অস্বাভাবিকভাবে প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টিপাত হয়েছিল। আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল ৪৫.৯ মিলিমিটার, যা স্বাভাবিকের তুলনায়  ৪৩৩ শতাংশ বেশি। এই সময় বৃষ্টিপাতের গড় হল ৮.৯ মিলিমিটার। ১৯৫১ সালের পর চলতি জানুয়ারি মাসই রেকর্ড করেছে বৃষিপাত আর উষ্ণতায়। প্রকৃত পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী দেশে গড় তাপমাত্রা ছিল ২৫.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও ১৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে জানুয়ারি মাসের গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় এক ডিগ্রি বেশি ছিল। 

১৯০১-২০২১ সালের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদী তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে ১৯২১ সালে জানুয়ার ছিল উষ্ণতম জানুয়ারি। আর ৬২ বছর আগে ১৯৫৮ সালের জানুয়ারির তাপমাত্রা ছিল ১৪.৭৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়ার দফতরের তথ্য অনুযায়ী  ২০২১ সালের জানুয়ারিতে  ইন্দো গঙ্গা সমভূমিতে ভারতের স্থানিক তাপমাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় ২-৪ ডিগ্রি কম  ছিল। আর দক্ষিণ পঞ্জাব , উত্তর হরিয়ানা আর বিহারে স্বাভাবিকের তুলনায় ৩-৪ ডিগ্রি কম ছিল। 

আবহাওয়া দফতরের রিপোর্ট অনুযায়ী চলতি জানুয়ারিতে ইস্টারলি অ্যাক্টিভিটি খুব বেশি ছিল। এই সময় আদ্রতার বেশি ছিল। দিল ও রাত উভয়ই মেঘলা ছিল। যা তাপকে আটকে রাখেয প্রথম সপ্তাহে পশ্চিমা হিমলায়ের উপর পশ্চিমা ঝঞ্ঝার প্রভাব ছিল। যা পূর্ব বা মধ্য ভারতকে তেমন প্রভাবিত করতে পারেনি।