রবিবার জম্মু -কাশ্মীরের সচিবালয় ভবনের মাথা থেকে খুলে ফেলা হল জম্মু ও কাশ্মীরের নিজেদের পতাকা। এটা ৩৭০ ধারা বাতিলেরই অংশ বলে জানিয়েছে প্রশাসন। এখন থেকে সব সরকারি ভবনের মাথায় শুধু ভারতের পতাকাই উড়তে দেখা যাবে বলে দাবি তাদের। এর আগে জম্মু কাশ্মীরের রাজ্য সচিবালয় থেকে জম্মু-কাশ্মীরের পতাকা সরানোর 'ফেক' ছবি সোশ্য়াল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু, এইবার প্রশাসন থেকে এই খবরের সত্যতা স্বীকার করা হয়েছে।


গত ৫ অগাস্ট ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা  বাতিল করেছে মোদী প্রশাসন। তারপর রাজ্যটিকে ভেঙে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ - দুটি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। ৬ অগাস্টই জম্মু ও কাষ্মীরের সচিবালয়ের মাথায় শুধু ভারতের তেরঙ্গা পতাকা ওড়ার একটি ভুয়ো ছবি ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল।

সেই সময় প্রশাসন থেকে জানানো হয়েছিল, পতাকা সরানোরক কোনও ঘটনা ঘটেনি। সরকারি ভাবে আগামী ৩১ অক্টোবর রাজ্যভাগের বিষয়টি কার্যকর করা হবে। ৩৭০ ধারা বাতিলের পরও এতদিন পর্যন্ত জম্মু কাশ্মীরের সরকারী ভবনের মাথায় ভারতের জাতীয় পতাকা ও জম্মু-কাশ্মীরের নিজস্ব পতাকা দুইই থাকায় মনে করা হয়েছিল সরকারি রাজ্যভাগের দিনই  পতাকা সরানোর কাজ করা হবে। কিন্তু, তার আগেই এদিন সেই পরিবর্তনটা ঘটে গেল।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে রাজ্যভাগের সঙ্গে পতাকা সরিয়ে ফেলার কোনও সম্পর্ক নেই। সংসদ থেকে ইতিমধ্য়েই ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রক্রিয়া চলানোর অনুমতি এসে গিয়েছে। সেইমতোই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। সচিবালয় থেকে জম্মু-কাশ্মীরের পতাকা নামিয়ে ফেলা হলেও এখনও অনেক সরকারি ভবনের মাথাতেই তেরঙ্গার সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরের পতাকা রয়ে গিয়েছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে সেগুলিও নামিয়ে ফেলা হবে।