ধীরে ধীরে বদলে যাচ্ছে জম্মু ও কাশ্মীর। পুলিশের সঙ্গে বিরোধ নয়, বরং সহয়োগিতার রাস্তাতেই আসছেন সেখানকার বাসিন্দারা। শনিবার এক পাক অনুপ্রবেশকারীকে জম্মুর এক গ্রামবাসীরা নিজেরাই আটক করে পরে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে বলে জানিয়েছে জম্মু পুলিশ।

জম্মু পুলিশের আইজি মুকেশ সিং জানিয়েছেন ওই পাক অনুপ্রবেশকারীর নাম বশরত আলি। ২০ বছরের বশরতের বাড়ি পাকিস্তানের শিয়ালকোটে। সেখান থেকে আন্তর্জাতিক সীমান্ত পের করে সে ঢুকে পড়েছিল ভারতে। চলে আসে আরএস পুরা সেক্টরের চন্দু চেক নামে গ্রামে। কিন্তু সেখানে গ্রামবাসীদের হাতে ধরা পড়ে যায় সে। এরপরই তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

কিন্তু সে কী উদ্দেশ্যে জম্মু-কাশ্মীরে এসেছে, তা এখনও জানা যায়নি। আইজি মুকেশ সিং জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে কোনও অস্ত্র ছিল না। পুলিশের সন্দেহ জঙ্গিরা তাকে রেইকি করতে পাঠিয়ে থাকতে পারে। এই বিষয়ে বশরতকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহে অবশ্য এক ভারতীয় নাগরিককেই পাকিস্তানে তথ্য পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল। গুরুদাসপুর গ্রামের বাসিন্দা বিপিন সিং, ক্যান্টনমেন্ট এলাকার ছবি তুলে এক পাক নাগরিককে পাঠাতে গিয়ে ধরা পড়ে। তাকে জেরা করে জানা গিয়েছে, ওই তথ্যের বিনিময়ে তাকে ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। আরও জানা গিয়েছে কর্তারপুর করিডোরের ছবিও সে আগে পাঠিয়েছে।