কার্গিলের যুদ্ধের জয় শুধু নিছকই একটি জয় নয়। এইটি আমাদের অর্থাৎ ভরতীয় আত্মসম্মানের জয়ও বটে। কার্গিল যুদ্ধ জয়ের ২১ তম বার্ষিকি উজ্জাপনকে এভাবেই ব্যাখ্যা করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এই যুদ্ধে সাফল্যের জন্য ভারতীয় সেনা বাহিনীর সদস্যদের তিনি অভিনন্দন  জানান। তিনি আরো বলেন বীর যোদ্ধাদের জন্য গর্বিত গোটা দেশ। কারণ তাঁরাই শত্রুপক্ষের হাত থেকে মাতৃভূমির সম্মান রক্ষা করেছিলেন। 


অন্যদিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন দেশের সেনা বাহিনীর কাছ থেকে আমাদের নিয়মানুবর্তীতা আর ঐক্যবোধ শেখা জরুরি। পাশাপাশি দেশের জন্য কাজ করার অনুপ্রেরণা যোগায়। দেশের ঐক্য ও শান্তি বাজায় রাখার জন্য সেনাদের অনুসরণ করা জরুরি বলেও জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন গোটা দেশই সৈন্যদের জন্য গর্ববোধ করে। 

দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কার্গিল বিজয় দিবসের সাফস্যের কথা স্মরণ করেন। সেই সঙ্গে আসে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর কথাও। ২১ বছর আগে ১৯৯৯ সালে ২৬ জুলাই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয় হাসিল করে ভারতীয় সেনা। কঠিন লড়াইয়ে সেই জয় ভারতের আত্মসম্মানও রক্ষা করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। আর এই যুদ্ধে ভারত ৫২৭ জন বীর যোদ্ধাকে হারিয়ে ছিল। এদিন শহিদদেরও স্মরণ করা হয়।