টানা বৃষ্টির জেরে বদলে গিয়েছে পাহাড়ের পরিস্থিতি। লাগাতার বৃষ্টির জেরে বিপদের সংকেত দিচ্ছে পাহাড়। কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টির জেরে শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং-এর ৫৫ নম্বর জাতীয় সড়কে নেমেছে ধস। ধসের কারণেই বিপর্যস্ত হয়েছে যান চলাচল এবং ব্যহত হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। 

প্রসঙ্গত বৃষ্টির কারণে নামা ধসের জেরে তিনধারিয়া, গয়াবাড়ি, রংটং এলাকায় ধসের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে নিউ জলপাইগুড়ি-দার্জিলিং টয় ট্রেন পরিষেবা। এমনকী আগামী কয়েকদিন ধরে পাহাড়ে টানা বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আবহাওয়া দফতর আরও জানিয়েছে, গত সোমবার পর্যন্ত দার্জিলিং-এ বৃষ্টিপাত হয়েছে ১০১ মিলিমিটার, শিলিগুড়িতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল প্রায় ৮২ মিলিমিটারের কাছাকাছি।

দার্জিলিং-এর জেলাশাসকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, একাধিক এলাকায়া ছোট-খাটো ধসের কথা জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রশাসনের তরফ থেকে রাস্তাঘাট মেরামতির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আরও জানানো হয়েছে যে, রাস্তা পুরোপুরিভাবে বন্ধ করা হয়নি, যানবাহন চলছে। সূত্রের খবর, এদিন গয়াবাড়ির কাছে রাস্তায় প্রায় পাহাড়ি ধসে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় নব্বই শতাংশ রাস্তা।  সেই রাস্তা পায়ে হেঁটে অতিক্রম করা গেলেও গাড়ি একেবারেই চলছে না। পাশাপাশি টয়ট্রেনের লাইন নুড়ি, ধস ও কাদামাটিতে চাপা পড়ে গিয়েছে। ঠিক কতদিনের মধ্যে লাইন পরিষ্কার করে যাতায়াত ব্যবস্থা স্বাভাবিক করে তোলা সম্ভব সেই নিয়েই এখন চিন্তায় দার্জিলিং হিমালয় রেল কর্তৃপক্ষ।