ভরসন্ধ্যে বেলায় দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য পাতালপথকেই বেছে নিয়েছিলেন তিনি। দিল্লির মেট্রোতে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার মুখে পড়লেন এক তরুণী। টুইটারে তাঁর পোস্ট দেখে নড়চড়ে নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ। অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষও।

ঘড়িতে তখন সন্ধে ছ'টা। দিল্লির মেট্রোর ইয়োলো লাইন ধরে গুরগাঁও যাচ্ছিলেন ওই তরুণী।  ফাঁকা মেট্রোর একেবারে শেষ কামরায় ছিলেন তিনি। ওই তরুণী জানিয়েছেন, যে সিটে বসেছিলেন, তার সামনেই দাঁড়িয়েছিল এক যুবক। টইটারে সেই যুবকের ছবি পোস্ট করেছেন অভিযোগকারী। লিখেছেন, 'খয়েরি জ্যাক ও সামমে ব্যাগ নিয়ে দাঁড়ানো এই যুবকই মেট্রোতে আমার সঙ্গে অশ্লীল ও অভব্য আচরণ করে। এতটাই ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম, যে মনেই ছিল না ওর ছবি তুলেছি। কয়েক ঘণ্টা পর বন্ধুর সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মনে পড়ল।'

আরও পড়ুন: গাছের শুকনো ডালের মত আকার নিল পা, বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুকন্যা

ওই তরুণীর বয়ান, “প্রথমে দেখি ওই যুবক ঠায় আমার দিকে তাকিয়ে আছে, তখন বুঝিনি। তারপর দেখি চোখ দিয়ে নানারকম অশ্লীল ইশারা করছে। মুখ ঘুরিয়ে নিতে গিয়েই চোখ পড়ে যুবকের ব্যাগের দিকে, দেখি ব্যাগটা সামনে থেকে সরানো এবং প্যান্টের চেন খুলে পুরুষাঙ্গ দেখাচ্ছে আমাকেই!' এখানেই শেষ নয়। ঘটনার পরে ওই যুবক মেট্রো কামরায় দরজা কাছে বেশ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে ছিল এবং ওই তরুণীকে দেখে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করছিল বলে অভিযোগ। ওই তরুণী জানিয়েছেন, এতটাই ভয় গিয়েছিলেন যে চিৎকারও করতে পারছিলেন না। ভয়ে কার্যত দমবন্ধ হয়ে আসছিল তাঁর। শেষপর্যন্ত ওই যুবক অন্য় কামরা দিকে চলে যায় এবং দৌড়ে স্টেশনে নেমে পড়েন ওই তরুণী।