গাড়ি শিল্পে মন্দার জের পড়ল এবার মারুতিতে। সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, চুক্তিভিত্তিক তিন হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করছে সংস্থা। ব্যবসায় মন্দার কারণেই ওই কর্মীদের সঙ্গে আর চুক্তি নবীকরণ করা হবে না। 

মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান আর সি ভার্গব নিজেই এ কথা জানিয়েছেন। তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন, গাড়ি বাজারের মন্দার সঙ্গে এঁটে উঠতেই এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে সংস্থাকে। তার উপরে গাড়ির নিরাপত্তা সংক্রান্তি বিধিনিষেধ আরও কঠোর হওয়ায় গাড়ি উৎপাদনের খরচ বেড়েছে। যে কারণে সংস্থার লাভেও টান পড়েছে। সংস্থার বার্ষিক বৈঠকে এমনই কথা জানিয়েছেন ভার্গব। 

আরও পড়ুন- আরও সহজ ব্যাঙ্ক ঋণ, অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে একগুচ্ছ ঘোষণা সীতারমণের

জুলাই পর্যন্ত একটানা ন' মাস ধরে গাড়ির বিক্রি কমেছে। জুলাই মাসে বিক্রি কমে গিয়েছিল ৩১ শতাংশ।  শোরুমগুলিতে বাড়ছে অবিক্রীত গাড়ির সংখ্যা। 

এই অবস্থায় বহু গাড়ি নির্মাতা সংস্থাই কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হেঁটেছে। অধিকাংশ সংস্থাই গাড়ির উৎপাদনও কমিয়ে দিয়েছে খরচ বাঁচানোর লক্ষ্যে।

মারুতি সুজুকির ওই শীর্ষ কর্তা জানিয়েছেন, দেশের পরিবেশ দূষণ সংক্রান্ত বিধিনিষেধ মানার উপরে জোর দিতে চাইছে সংস্থা। সেই কারণেই আরও বেশি করে সিএনজি এবং হাইব্রিড গাড়ির উৎপাদন বাড়াবে সংস্থা। চলতি বছরেই সিএনজি গাড়ির উৎপাদন পঞ্চাশ শতাংশ বাড়াতে চায় সংস্থা। 

গাড়ি শিল্পের অচলাবস্থা কাটাতে কেন্দ্রীয় সরকারও এগিয়ে এসেছে। কেন্দ্রীয় বিভিন্ন দফতরে নতুন গাড়ি কেনার উপরে যে নিষেধাজ্ঞা ছিল, তা তুলে নিয়েছে সরকার।