জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণার আগেই জম্মু ও কাশ্মীরের দুউ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতি-কে গৃহবন্দি করে রাখার খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। পরে তাঁদের গ্রেফতার করার ঘটনাও প্রকাশ্যে এসেছিল বলে খবর। এই প্রসঙ্গে এর আগেও সরব হয়েছিলেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির মেয়ে ইলতিজা জাভেদ।  আর এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে একটি ভয়েস মেসেজ পাঠালেন মেহবুবা মুফতি- কন্যা ইলতিজা। 

এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে একটি ভয়েস মেসেজ পাঠানোর পাশাপাশি একটি চিঠিও লিখেছেন বলে খবর। চিঠিতে ইলতিজা জাভেদ লিখেছেন, তাঁকে হুমকি দেওয়া হয়েছে যে, তিনি যদি মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেন, তাহলে তার ভয়ানক পরিণতি হবে তাঁর। তিনি আরও লেখেন কাশ্মীরের সাধারণ মানুষ সামান্য মৌলিক অধিকার থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন এবং সারা দেশ যখন স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত করছে তখন কাশ্মীরিদের  বস্থা কার্যত খাঁচায় বন্দি পশুর মতো। 

প্রসঙ্গত গত ১২ দিল ধরে কাশ্মীর উপত্যকায় বন্দিদশা কাটাচ্ছেন সেখানকার সাধারণ মানুষ। মুলধারার রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব-দের গ্রেফতার করে রাখার ঘটনাও প্রকাশ্যে এসেছে, যাঁদের মধ্যে মেহবুবা মুফতি এবং ওমর আবদুল্লার নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। মেহবুবা মুফতির গৃহবন্দির ঘটনায় এর আগে একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে ইলতিজা জানিয়েছিলেন, সরকার তাঁর মায়ের মনোবল ভেঙে দিতে চাইছে। কিন্তু তারা জানে না যে, তাঁর মা খুবই শক্ত মনের মানুষ। 

আর এবার সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে ইলতিজা জানিয়েছেন, বিশ্বের সর্ববৃহৎ গণতন্ত্রে একজন নাগরিকের কি দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে সওয়াল করার কোনও অধিকারই নেই?- চিঠিতে এই প্রশ্নও তুলেছেন ইলতিজা। জম্মু ও কাশ্মীরে যেহেতু এখনও যেহেতু এখনও যোগাযোগের যাবতীয় মাধ্যম বন্ধ, বন্ধ মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা, সেজন্য ভয়োস মেসেজের সাহায্য নিয়েছেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন বিষয়টি খুবই অদ্ভুত যে, সত্য তুলে ধরার জন্য তাঁর সঙ্গে একজন যুদ্ধাপরাধীর মতো আচরণ করা হচ্ছে।