হিন্দু মহাসভার সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিনায়ক দামোদর সাভারকর-এর মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসে-র সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল। সাভারকর এবং আরএসএস সম্পর্কে লেখা একটি বিতর্কিত পুস্তিকায় এমন চাঞ্চল্যকর দাবিই করা হয়েছে। 'হাউ ব্রেভ ওয়াস বীর সাভারকর' বা 'কত সাহসী ছিলেন বীর সাভারকর' নামে এই পুস্তিকাটি মধ্যপ্রদেশের ভোপালে কংগ্রেসের এক সেবা দল প্রশিক্ষণ শিবিরে বিতরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। এতে সাভারকারকে ঘিরে বিভিন্ন ঘটনা, প্রশ্ন ও বিতর্ক সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

ডমিনিক ল্যাপিয়ের এবং ল্যারি কলিন্স-এর 'ফ্রিডম অ্যাট মিডনাইট' গ্রন্থ থেকে একটি ঘটনার কথা উল্লেখ করে কংগ্রেসের প্রকাশিত পুস্তিকাটিতে বলা হয়েছে, ব্রহ্মাচর্য গ্রহণ করার আগে নাথুরাম গডসের মাত্র একটিই শারীরিক সম্পর্কের কথা জানা যায়। তা হল তাঁর সঙ্গে বীর সাভারকর-এর সমকামী সম্পর্ক। পুস্তিকাটির উদ্দেশ্য ছিল হিন্দু মহাসভার সহ-প্রতিষ্ঠাতা সম্পর্কে কিছু প্রশ্নের জবাব দেওয়া। কিন্তু এর বিষয়বস্তু বড় বিতর্ক সৃষ্টি করতে পারে।

যেমন, প্রশ্নের মধ্যে রয়েছে 'সাভারকর কি হিন্দুদের সংখ্যালঘু মহিলাদের ধর্ষণ করতে উৎসাহিত করেছিলেন?' কংগ্রেসের পুস্তিকায় জবাব দেওয়া হয়েছে হ্যাঁ। এছাড়া এই পুস্তিকায় আরও দাবি করা হয়েছে সাভারকর মাত্র ১২ বছর বয়সেই একটি মসজিদে পাথর ছুঁড়ে মেরেছিলেন। এছাড়া আরএসএস-কে একটি 'নাৎসি এবং ফ্যাসিবাদী' সংগঠন বলা হয়েছে। পুস্তিকা অনুসারে হিটলারের নাৎসিবাদ এবং মুসোলিনির ফ্যাসিবাদ থেকেই অনুপ্রেরণা পেয়েছে এই হিন্দুত্ববাদী সংগঠন।