আজ ২৯ জুলাই। সারা বিশ্বে আজকের দিনটি আন্তর্জাতিক ব্যাঘ্র দিবস হিসাবে পালিত হয়। আর আজকের এই বিশেষ দিনেই প্রকাশিত হল বাঘ সুমারির রিপোর্ট। এইদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানালেন এদেশে বাঘের সংখ্যা সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে।এদিন প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, এদেশ বাঘের বসবাসের পক্ষে আদর্শ হয়ে উঠেছে।

সোমবার সকালে সেই রিপোর্ট প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি বলেন, এই রিপোর্টে যে ফলাফল পাওয়া গিয়েছে তা সকলকেই আনন্দ দেবে। বাঘ সুমারির রিপোর্টে বলা হয় যে,  এদেশে বর্তমানে ৩০০০ বাঘ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, আজ গর্বের সঙ্গে বলতে পারেন যে ৩০০০ বাঘ নিয়ে আজ ভারত বিশ্বের মধ্যে বাঘের জন্য অন্যতম বড় এবং নিরাপদ বাসস্থান। 

 

মজা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গল্পটা শুরু হয়েছিল 'এক থা টাইগার' দিয়ে যা এখন এসে পৌঁছেছে 'টাইগার জিন্দা হ্যায়'-তে। আর এর শেষ এখানেই হওয়া উচিত নয় বলেন তিনি। 'বাঘও ম্যায় বহার হ্যায়' হওয়া দরকার বলে জানান তিনি। তিনি আরও বলেন নয় বছর আগে সেন্ট পিটার্সবার্গে একটি লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছিল, যেখানে বলা হয়েছিল, ২০২২ সালের মধ্যে এদেশে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করা হবে। তিনি এদিন বলেন সেই নির্ধারিত সময়ের চার বছর আগেই সেই লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। 

অ্যাডভেঞ্চারের টানে এবার জঙ্গলে নরেন্দ্র মোদী, দেখুন রুদ্ধশ্বাস টিজার

প্রসঙ্গত ২০১৪ সালের রিপোর্ট অনুসারে, এদেশে বাঘের সংখ্যা ছিল ২২২৬টি। ওয়াইল্ড লাইফ ইন্সটিটিউট অব ইন্ডিয়া এবং জাতীয় ব্যাঘ্র সংরক্ষণ দফতরের মিলিত প্রয়াসে এই রিপোর্ট প্রস্তুত করা হয়েছিল। দেশে বাঘের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার খবরে এদিন দৃশ্যত খুশি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।