নতুন তিনটি কৃষি আইন নিয়ে তীব্র সমালোচনা করেছিলেন এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার। শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর বার্তা দেন শরদ পাওয়ার। আর রবিবারই তার উত্তর দিলেন কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর।  তিনি বলেন শরদ পাওয়ারের মতই তাঁর সরকারও কৃষি ক্ষেত্রে সংস্কার আনার চেষ্টা করছে। 

শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে শরদ পাওয়ার বলেছিলেন নতুন কৃষি আইন মাণ্ডি ব্যবস্থার ক্ষমতা সীমাবদ্ধ করবে। মজুদ সীমাবদ্ধতা সরিয়ে ফেললে পণ্যগুলি গ্রাহকদের কাছে বেশি দামে বিক্রি করার সুবিধে হবে।তাতে কৃষকরাও ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তিনি এদিন স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন নতুন কৃষি আইনে মান্ডি প্রথার কোনও ক্ষতি হবে না। পরিবর্তে পরিষেবা ও পরিকাঠামো আরও উন্নত হবে বলেও দাবি করেছেন তিনি। তিনি বলেন প্রতিযোগিতামূলক ও ব্যববহুল হবে। যা কৃষকদের সাধারণ স্বার্থ রক্ষা করতে সক্ষম হবে। এটাই প্রথম নয়। এর আগেও কৃষি মন্ত্রী একাধিকবার কৃষি আইনের স্বপক্ষে একাধিক তথ্য প্রমান তুলে ধরেছিলেন। এদিনও সেই একই পদক্ষেপ নিলেন তিনি। 

এদিন নরেন্দ্র সিং তোমর বলেন, বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ শরদ পাওয়ারও একসময় কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী ছিলেন। তিনিও কৃষি ক্ষেত্রে সংস্কার আনতে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। কৃষি ক্ষেত্রে সংস্কারের অভিজ্ঞতা তাঁর রয়েছে। নতুন কৃষি আইন নিয়ে নিয়ে শরদ পাওযার ভুল তথ্য পরিবেশন করছেন বলেও এদিন অভিযোগ করে নরেন্দ্র সিং তোমর বলেন শরদ পাওয়ারের এই বক্তব্য তিনি খুবই অবাক রয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি কিছু তথ্য উপস্থান করতে চান বলে একটি তালিকাও পেশ করেন। একই সঙ্গে তিনি বলেন নতুন ক়ষি আইনগুলি কৃষকদের অতিরিক্ত পণ্য যেকোনও ব্যক্তির কাছে বিক্রির স্বাধীনতা রয়েছে। তারা যেকোনও চ্যানেলেই তাদের উৎপাদিত সফল বিক্রি করতে পারেবে। একই সঙ্দে তিনি বলেন শরদ পাওয়ারের মত প্রবীন নেতার কাছ থেকে এজাতীয় ভুল তথ্য তিনি আশা করেন না বলেও জানিয়েছেন।