প্রেসিডেন্সিয়াল অর্ডারে বিলুপ্ত হয়েছে সংবিধানের ৩৭০ ধারা। এর ফলে বিশেষ মর্যাদা হারিয়েছে  জম্মু ও কাশ্মীর। এর বিরোধিতা করে, রাষ্ট্রপতির আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে শনিবার সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করল ন্যাশনাল কনফারেন্স দল।

ওমর আবদুল্লার দলের নেতা মহম্মদ আকবর লোন এবং হাসনাইন মাসুদি শীর্ষ আদালতে এই মামলা করেছেন। তাঁদের আবেদন রাষ্ট্রপতির এই আদেশনামাকে 'অসাংবিধানিক, নিষ্ফলা এবং অকার্যকর' বলে ঘোষণা করার নির্দেশ দিক আদালত। এর পাশাপাশি 'জম্মু ও কাশ্মীর রিঅর্গানাইজেশন অ্যাক্ট, ২০১৯'-কেও  'অসাংবিধানিক' বলে ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছে ন্যাশনাল কন্ফারেন্স।   

গত ৫ আগস্ট নরেন্দ্র মোদী সরকার ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করে। এখই সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরের প্রশাসনিক কাঠানমো ঢেলে সাজানোর লক্ষ্যে 'জম্মু ও কাশ্মীর রিঅর্গানাইজেশন অ্যাক্ট, ২০১৯'বিল পাস করা হয়। রাষ্ট্রপতিও এই দুই বিলে সম্মতি দিয়েছেন। ফলে আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্য, জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ নামে দুটি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে ভেঙে যাবে।

৩৭০ ধারা বাতিলের পরই অশান্তি এড়াতে কাশ্মীরের বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিরক দলের নেতাদের গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে। ন্য়াশনাল কন্ফারেন্স, দলের শীর্ষ নেতারাও আপাতত গৃহবন্দী। তবে ক্রমেই উপত্যকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে।