লাক্ষাদ্বীপে যদি নতুন কোনও নিয়ম বলবৎ করতে হয়, তবে সেখানকার বাসিন্দাদের জনমত নিয়ে করতে হবে। বিজেপির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চাগাড় দিয়ে উঠতেই সুর নরম কেন্দ্রের। লাক্ষাদ্বীপ ইস্যুতে এবার ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি সোমবার এই ইস্যুতে লাক্ষাদ্বীপের প্রশাসক প্রফুল খোদা প্যাটেলকে জানিয়ে দেন এই বার্তা। 

অমিত শাহ জানান, যে সব নিয়ম নতুন করে নিয়ে আসতে চলেছে প্রফুল প্যাটেল, তা বলবৎ এখনই করা যাবে না, কারণ মানুষ এই নিয়মের বিরোধিতা করছেন। মানুষকে বুঝিয়ে নিজেদের পক্ষে আনতে পারলে, তবেই এই নিয়ম লাক্ষাদ্বীপে জারি করা হবে। সূত্রের খবর দলীয় নেতৃত্ব নতুন নিয়ম বলবৎ করার বিষয়ে ধীরে চলো নীতি গ্রহণ করেছে। এই ইস্যুতে লাক্ষাদ্বীপের বিজেপি বিরোধী হাওয়া প্রশমন করতে আসরে নেমেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। 

কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলটির প্রশাসনকে অমিত শাহ জানিয়ে দিয়েছেন কোনও ভাবেই জোর করে কোনও নীতি চাপানো যাবে না। সেখানকার বাসিন্দাদের অমিত শাহের বার্তা, ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই। সংখ্যাগরিষ্ঠের মত না নিয়ে কোনও কাজ বিজেপি সরকার করবে না। মানুষের সঙ্গে আলোচনা করেই এগোনো হবে। 

সোমবার এই ইস্যুতে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই বৈঠকে ছিলেন বিজেপির সহ সভাপতি এ পি আবদুল্লাকুট্টি, যিনি লাক্ষাদ্বীপে বিজেপির পর্যবেক্ষক। লাক্ষাদ্বীপে বিজেপির সভাপতি আবদুল খাদের হাজি, ছিলেন লাক্ষাদ্বীপের বেশ কয়েক দলীয় নেতা। উপস্থিত ছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা।