দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এবার ৪০০ ছাড়িয়ে গেল। করোনা সংক্রমণ রুখতে রবিবার দেশে জনতা কারফিউয়ের ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিকেল পাঁচটায় করোনার বিরুদ্ধে যারা লড়াই করছেন সেই স্বাস্থ্যকর্মী ও আপৎকালীন পরিষেবা বিভাগের লোকেদের নিরলস পরিশ্রমকে কৃতজ্ঞতা জানাতে হাততালি দেওয়ার কথা বলেছিলেন মোদী। রবিবার সারাদিন গৃহবন্দি ছিল গোটা দেশ। কিন্তু বিকেল পাঁচটা বাজতেই অনেকেই একসঙ্গে থালা-বাসন বাজাতে বাজাতে পথে নেমে পরেন। গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখতে  সকলকেই নিজের বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্য প্রশসান উভয়ই। এই অবস্থায় রবিবার বিকেলের ঘটনা কিছু মানুষের সচেতনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে । এরমধ্যেই সোমবার ট্যুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী।

ট্যুইটে মারণ করোনা ভাইরাস নিয়ে ফের একবার সতর্ক করতে দেখা গেছে নরেন্দ্র মোদীকে। প্রধানমন্ত্রী নিজের ট্যুইটবার্তায় লেখেন, ‘এখনও পর্যন্ত অনেকেই এমন রয়েছেন যাঁরা গুরুত্বসহকারে লকডাউনকে বিবেচনা করছেন না। অনুগ্রহ করে নিজেকে এবং পরিবারকে রক্ষা করুন। নির্দেশিকা মেনে চলুন।’

 

 

গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখতে লকডাউন করা ছাড়া বর্তমানে প্রশাসনের কাছে আর কোনও বিকল্প নেই। যেভাবে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটছে তাতে উদ্বিগ্ন কেন্দ্রীয় সরকার ৭৫টি জেলাকে পুরোপুরি লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার অংশ হিসাবে লকডাউন  হতে চলেছে কলকাতা সহ এরাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলা। বাকি জেলাগুলির সদর ও বেশ কয়েকটি মহকুমাতেও হবে লকডাউন। এই সময়কালে রাস্তাঘাটে সাত জনের বেশি মানুষের জমায়েতের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। বন্ধ থাকছে ট্রেন, মেট্রো, বাস-সহ যাবতীয় গণপরিবহণ ও অফিস, কারখানা। প্রয়োজন ছাড়া সকলকেই বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে। রাজ্য সরকার জানিয়েছে, নির্দেশিকা না মানলে আইন মোতাবেক পদক্ষেপ করা হবে।

করোনা যেন ওদের কাছে আশীর্বাদ, জনতা কারফিউতে রাজপথে নিজেদের অধিকার ফলাল পক্ষিবাহিনী

গত ২৪ ঘণ্টায় মার্কিন মুলুকে করোনা প্রাণ কাড়ল শতাধিক, সব ভুলে কিমের প্রশংসায় ব্যস্ত ট্রাম্প

আজ থেকে লকডাউনে কলকাতা, করোনা মোকাবিলায় যথেষ্ট নয়, বলছে 'হু'

শুধু এরাজ্য নয় রাজধানী দিল্লি সহ রাজস্থান, পঞ্জাব, কর্ণাটক, উত্তরপ্রদেশ সহ দেশের নানা প্রান্তকেই লকডাউন করা হচ্ছে। করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা করতে তারপরেও কিছু মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাব দেখা যাচ্ছে। তা আটকাতেই এবার রাজ্যগুলিকে  বিজ্ঞপ্তি দিয়ে লকডাউন লাগু এবং আইনভঙ্গকারীর বিরুদ্ধে কড়া আইনি পদক্ষেপের নির্দেশ জারি করল কেন্দ্র।