কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ফের একবার স্থবিরতার অভিযোগ আনলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর এর জন্য তিনি হাতিয়ার করলেন অটল টানেলকে। শনিবার জাতির উদ্দেশে অটল টানেলকে উৎসর্গ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই অটল টানেলের কাজের মন্থরতা নিয়ে কংগ্রেসের দিকে বান নিক্ষেপ করেন তিনি। জানান, যে প্রকল্পের বিজ বুনেছিলেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী। সেই প্রকল্পের কাজ সমানে থমকে গিয়েছে। যে কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল ৭ বছরে। সেই অটল টানেলকে বাস্তবায়িত করতে লেগে গেল ২০টা বছর। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কটাক্ষ করে বলেন, তাঁর সরকারের আগে কাজে সেভাবে গতি হয়নি। যেভাবে টানেল খননের কাজ হয়েছে, সেই গতি-কে বজায় রেখে যদি কাজ হত তাহলে ২০৪০ সালের আগে অটল টানেল বাস্তবায়িত হত না বলেই মনে করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অটল টানেলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সকলের সামনে সেই কথাও উল্লেখ করেন তিনি। 

ভিডিও স্টোরি- জাতির উদ্দেশে অটল টানেলকে উৎসর্গ প্রধানমন্ত্রীর, এক নজরে অটল টানেলের ইতিহাস

প্রধানমন্ত্রী জানান, তাঁর সরকার যে গতিতে অটল টানেলের কাজ করেছে তাতে তারা ২৬ বছরের কাজ ৬ বছরে করে দেখিয়েছেন। তাঁর মতে, এই তৎপরতা যদি আগের সরকার দেখাতো তাহলে এতদিনে টানেল তৈরির কাজ শেষও হয়ে যেত এবং প্রকল্পের খরচও কম পড়ত। তিনি বলেন, বারবার বিলম্বের ফলে, সমানে বেড়ে গিয়েছে প্রকল্পের খরচ। অথচ, এই টানেল যে শুধু হিমাচল প্রদেশ নয় দেশের আর্থিক এবং সুরক্ষা বৃদ্ধিতে একটা গুরুত্বপূর্ণ তা একবারও ভেবে দেখা হয়নি। 

 

Live Atal Tunnel- অটল টানেলের ফিতা কাটলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী, ভাষণে সকলে জানালেন অভিনন্দন

প্রকল্পের বিলম্বের ফলে যেভাবে খরচ বেড়ে যাচ্ছিল তার পিছনে কোনও দুর্নীতিও কাজ করেছে কি না তার একটা সম্ভাবনা এদিন উসকে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানান, একাধিকবার এই সুড়ঙ্গ তৈরির ঠিকাদার সংস্থাকে বদলানো হয়েছে। তিনি জানান, তাঁর সরকার বর্ডার রোড অর্গানাইজেশনের দক্ষতার উপরেই ভর করেছে এবং প্রকল্প শেষ করার জন্য তাদের উপরেই নির্ভর করেছে। 

প্রধানমন্ত্রীর মতে, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অটলবিহারী বাজপেয়ীর নামে শুরু হওয়া বহু প্রকল্পের কাজ এখনও আটকে রয়েছে। দেখে যা মনে হচ্ছে কেন্দ্রের এনডিএ সরকার উদ্যোগ না নিলে হয়তো এই সব প্রকল্পের কাজও শেষ হবে না। প্রকল্পের এমন দেরি হওয়ার পিছনে কংগ্রেসের ষড়যন্ত্রের গন্ধও পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এমনকী তিনি কংগ্রেসকে আক্রমণ শানাতে গিয়ে বলেন, সব সময় উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে দেশের উন্নয়ন এবং আর্থিক বৃদ্ধির হারকে মন্থর করে দেওয়ার চক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু, তাঁর সরকারের মূল উদ্দেশ্যই হল সকলের সঙ্গে সকলের দ্রুত বিকাশ। আর সেই লক্ষেই তাঁরা কাজ করে চলেছেন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।