পাক সংসদের স্বীকারোক্তিতেই ফাঁস হয়ে গিয়েছে বিরোধীদের রাজনীতির রং। শনিবার গুজরাতে ঐক্য দিবসের কুচকাওয়াজ দেখার পর, ভাষণ রাখতে গিয়ে 'রাজনৈতিক স্বার্থকে দেশের স্বার্থের' আগে রাখা নিয়ে বিরোধীদের কড়া আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সরাসরি অভিযোগ করলেন পুলওয়ামার পর বিরোধীরা দেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলী দিয়েছিলেন।  

এদিন, বক্তব্য রাখতে উঠে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আধাসামরিক বাহিনীর কুচকাওয়াজ দেখতে দেখতে তাঁর মনে পড়ে যাচ্ছিল পুলওয়ামার হামলার কথা। 'সাহসী পুত্রদের' সেই বলিদান দেশ কখনও ভুলতে পারবে না, বলে জানান তিনি। এরপরই পাকিস্তানের নাম না করে তিনি বলেন, সম্প্রতি প্রতিবেশী দেশের সংসদে পুলওয়ামা হামলার সত্যকে মেনে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু, পুলওয়ামার পর যখন পুরো দেশ শোকাহত, সেইসময় বিরোধীরা তাদের রাজনৈতিক আগ্রহ দেখতে ব্যস্ত ছিলেন। তারা 'কীভাবে বিবৃতি দিয়েছিল' তাও দেশ ভুলবে না, বলে দাবি করেন তিনি।

পাক সংসদে পুলওয়ামা হামবলার বিষয়টি মেনে নেওয়ায় বিরোধীদের 'আসল চেহারা' দেশের সামনে প্রকাশিত হয়ে গিয়েছে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। তিনি আরও বলেন, বিরোধীরা তাদের রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য কতদূর যেতে পারেন, পুলওয়ামার হামলার পরের রাজনীতি তার দুর্দান্ত উদাহরণ। এরপরই দেশের সুরক্ষার স্বার্থে, সুরক্ষা বাহিনীর মনোবলের জন্য, বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে এই জাতীয় রাজনীতি না করার আহ্বান জানান তিনি। দেশের স্বার্থই সর্বোচ্চ, তা বিরোধীদের মনে করিয়ে দেন মোদী।