বুধবার দুপুরে ফ্রান্স থেকে ৭০০০ কিলোমিটার পারি দিয়ে হরিয়ানার আম্বালার বায়ুসেনা ঘাঁটিতে এসে পৌঁছেছে ৩৬টি রাফাল যুদ্ধ বিমানের প্রথম পাঁচটি। রাফালের অন্তর্ভুক্তিতে ভারতীয় বায়ুসেনার ক্ষমতা একলাফে অনেকটাই বেড়ে গেল। আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সংস্কৃত ভাষায় একটি টুইট করে রাফাল যুদ্ধবিমান-কে ভারতে স্বাগত জানালেন। তিনি বললেন দেশরক্ষার মতো বড় পূণ্য আর কিছুতে নেই।

বুধবার বিকেলে পাঁচটি রাফালে জেট-এর প্রথম ব্যাচ আম্বালায় অবতরণের কয়েক মুহুর্ত পরই আসে প্রধানমন্ত্রীর টুইট। তাঁর সেই সংস্কৃত টুইটের বাংলা করলে দাঁড়ায়, 'দেশকে রক্ষার মতো পূণ্য, দেশরক্ষার মতো ব্রত, দেশরক্ষার মতো যজ্ঞের থেকে বড় আর কিছু নেই।' একই সঙ্গে রাফালল গৌরবের সঙ্গে আকাশ স্পর্শ করুক এই কামনা করেই ভারতীয় বায়ুসেনার নবতম সদস্যকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর টুইটে সংস্কৃত ভাষায় যে 'নভঃ স্পর্শং দীপ্তম' বা 'গৌরবের সঙ্গে আকাশ ছোঁয়া' বলে নীতিবাক্যটি রয়েছে, তা ভারতীয় বায়ুসেনার ইন্সিগনিয়া বা প্রতীকেও খোদাই করা থাকে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৩ 36 টি রাফালে জেট সংগ্রহের জন্য ফ্রান্সের সাথে সরকারি চুক্তিতে সরকার প্রবেশের জন্য ব্যক্তিগতভাবে সমর্থন করেছিলেন বলে মনে করা হয়। প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে এই রাফাল যুদ্ধবিমানগুলির অন্তর্ভুক্তিতে ভারতীয় বায়ুসেনার আক্রমণের ক্ষমতা উল্লেখযোগ্যরকম বেড়ে গেল। এই বিমান আগামী দিনে গেম-চেঞ্জার হিসাবে প্রমাণিত হতে পারে।

এদিন বিমানগুলি আম্বালায় অবতরণের পর প্রথমেই তাদের জল সেলাম দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। তারপর বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদৌরিয়া এবং এওসি ইন কমান্ড এয়ার মার্শাল বি সুরেশ প্রথম পাঁচটি আইএএফ রাফাল-কে স্বাগত জানান।