শুক্রবার এলাহাবাদ হাইকোর্টের নোটিশ পেলেন মোদী। বারানসী কেন্দ্র থেকে লোকসভা ভোট ২০১৯-এ তাঁর জয়কে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা করেছিলেন সীমান্তরক্ষী বাহিনীর প্রাক্তন জওয়ান তেজ বাহাদুর যাদব। গত মে মাসে মে মাসে তিনি এলাহাবাদ হাইকোর্টে দাবি করেছিলেন মোদীর বিরুদ্ধে তাঁকে অন্যায়ভাবে ভোটে লড়তে দেওয়া হয়নি।

বারানসী থেকে প্রথমে নির্দল হিসেবেই ভোটে দাঁড়াতে চেয়েছিলেন তেজ বাহাদুর। পরে সমাজবাদী পার্টি তাঁকে তাদের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে। কিন্তু নির্বাচন কমিশন তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেয়। কারণ তাঁকে যে সেনাবাহিনী থেকে বরখাস্ত করা হয়নি তার কোনও শংসাপত্র তিনি দাখিল করতে পারেননি।

এরপরই মামলার পথে যান তেজ বাহাদুর। আদালতে তিনি দাবি করেন, বারানসীর রিটার্নিং অফিসার অন্যায়ভাবে তাঁর মনোনয়নপত্র প্রত্যাখ্যান করেন। তাঁর আবেদন ছিল, বারানসীর ভোট বাতিল করে, প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর সাংসদ পদ খারিজ করে দেওয়া হোক। তাঁর সেই আবেদনের ভিত্তিতেই প্রধানমন্ত্রীকে নোটিশ পাঠালো আদালত। বিচারক এমকে গুপ্তার এজলাশে আগামী ২১ আগস্ট এই মামলার শুনানি শুরু হবে।

২০১৭ সালে তেজবাহাদুর যাদবকে সেনাবাহিনী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি সেনাবাহিনীর খাওয়ারের দৈন্য দশা নিয়ে অভিযোগ করে একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন। যা ভাইরাল হয়ে গিয়ে সাড়া দেশে আলোড়ন তুলেছিল। এই অপরাধেই তাঁকে বাহিনী থেকে বের করে দেওয়া হয়।