প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্রে খবর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ১৬ জুন এবং ১৭ জুন এই দুই দুনে দুইভাগে ভারতের সকল রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। ইতিমধ্য়েই কবে কোন রাজ্যের সঙ্গে কথা বলবেন মোদী, তা স্থির করা হয়েছে। এই বৈঠক হবে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে। আনলক ১.০'র বিভিন্নরকম ব্যবস্থাপনা, সুবিধা-অসুবিধা ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা হবে বলেই জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত করোনাভাইরাস রুখতে লকডাউন জারি এবং সেই লকডাউন তোলা এবং মহামারির ধাক্কায় বেসামাল অর্থনীতির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গত দুই মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে এই জাতীয় বেশ কয়েকটি বৈঠক করেছেন। ২৪ মার্চ লকডাউনের প্রথম পর্বের ঘোষণার পর থেকে এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ষষ্ঠ ভার্চুয়াল বৈঠক হবে। ৮ জুন, রাজ্যগুলি 'আনলক ১.০' সংক্রান্ত কেন্দ্রের নির্দেশ মেনে লকডাউনের বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞাগুলি প্রত্যাহার করেছে। তারপর রাজ্যগুলির অবস্থা নিয়েই আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

১৬ জুন, অর্থাৎ বৈঠকের প্রথম দিন প্রধানমন্ত্রী কথা বলতে পারেন পঞ্জাব, অসম, কেরল, উত্তরাখণ্ড, ঝাড়খন্ড, ছত্তিসগড়, ত্রিপুরা, হিমাচল, চণ্ডীগড়, গোয়া, মণিপুর, নাগাল্যান্ড, লাদাখ, পুদুচেরি, অরুণাচল প্রদেশ, মেঘালয়, মিজোরাম, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, দাদার নগর হাভেলি ও দমন দিউ, সিকিম ও লাক্ষাদ্বীপ - এই ২১টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির সঙ্গে।

পরের দিন ১৭ জুন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হবে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গুজরাত, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, কর্ণাটক, বিহার, অন্ধ্রপ্রদেশ, হরিয়ানা, জম্মু ও কাশ্মীর, তেলেঙ্গানা ও ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে।