মারণ ভাইরাস থাবা বসিয়েছে এদেশেও। ইতিমধ্যে ১২ জন ভারতীয়র শরীরে পাওয়া গিয়েছে করোনা ভাইরাস। এরসঙ্গে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ইতালি থেকে আসা আরও ১৬ জন পর্যটক। সবমিলিয়ে বর্তমানে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছে গেছ ২৮। আর এই পরিস্থিতিতে আগামী সপ্তাহে রঙের উৎসব হোলি। যেখানে সকলে মিলে হুল্লোড় করাই নিয়ম। কিন্তু করোনা আতঙ্কের কারণে জমায়েত এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। সেই কারণে এবছর হোলির কোনও  অনুষ্ঠানে তিনি অংশ নেবেন না বলে জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

করোনা সংক্রমণ রুখতেই এবার  হোলি না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ট্যুইটে নরেন্দ্র মোদী লেখেন, 'কোভিড-১৯ নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে বিশ্বজুড়ে বিশেষজ্ঞরা জমায়েত এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। তাই এই বছর আমি কোনও হোলির মিলন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।'

এর আগে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য দেশবাসীর কাছে আবেদন করে ট্যুইট করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে আশ্বস্ত করে তিনি জানিয়েছিলেন, দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রক এবং রাজ্য সরকারগুলি একজোট হয়ে কাজ করছে৷

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবছর হোলির কোন মিলন উৎসবে অংশ নেবেন না বলে জানিয়েছেন। এনিয়ে ট্যুইটও করেছেন তিনি। এবছর হোলির জমায়েত এড়াতে সকলকে অনুরোধ করেছেন অমিত শাহ।