Asianet News BanglaAsianet News Bangla

লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনার মাঝেই রাজনাথের উপস্থিতিতে বায়ুসেনায় রাফাল, ঐতিহাসিক মুহূর্তের স্বাক্ষী ফ্রান্সও

  • আনুষ্ঠানিক ভাবে বায়ুসেনায় যোগ দিল রাফাল
  • আম্বালা এয়ারবেসে রাফালের আনুষ্ঠানিক অভিষেক
  • অনুষ্ঠানে সামিল হলেন ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরঁস পার্লি
  • সর্বধর্ম আরাধনার পর হল রাফালের অন্তর্ভুক্তি
Rafales formally inducted into the Indian Air Force BSS
Author
Kolkata, First Published Sep 10, 2020, 12:06 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

গত ২৯ জুলাই ফ্রান্স থেকে ভারতে পৌঁছয় পাঁচটি রাফাল যুদ্ধবিমান। এতদিন আম্বালা এয়ারবেসেই প্রস্তুতি চালাচ্ছিল রাফাল। বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিক ভাবে এই বিমান ঘাঁটিতেই  বায়ুঘাঁটিতে ভারতীয় বায়ুসেনার ১৭ নম্বর স্কোয়াড্রনের অন্তর্ভুক্ত হল ৫টি রাফাল যুদ্ধবিমান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরঁস পার্লি। 

 

 

ভারতীয় বায়ুসেনার গোল্ডেন অ্যারোজ বা সোনার তিরতে রাফালের অন্তর্ভুক্তির ঐতিহাসির মুহূর্তের স্বাক্ষী থাকলে হাজির ছিলেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত, বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদোরিয়া, প্রতিরক্ষা সচিব অজয় সচিব-সহ আরও অনেকে। 

 

 

প্রথামাফিক বায়ুসেনা  অন্তর্ভুক্তির আগে 'সর্বধর্ম পুজো' হয়। একটি বায়ু প্রদর্শনীতেও অংশগ্রহণ করল রাফাল ও তেজাস। তারপর ভারতীয় বায়ুসেনার নয়া যুদ্ধবিমানকে জলকামানের মাধ্যমে স্যালুট জানানো হয়।

 

 

এদিন এয়ার শোতেও সামিল হয় রাফাল। ঘণ্টায় ৭২০ কিলোমিটার গতিতে আকাশে উড়তে দেখা গেল এই ফরাসি যুদ্ধবিমানকে। আম্বালা এয়ারবেসে সকাল ১০.৪৫ মিনিট নাগাদ বায়ুসেনার হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেওয়া হল রাফালকে। আর এর মাধ্য়মেই ভারতীয় বায়ুসেনায় এক ইতিহাসের রচনা হল। রাফাল ও তেজস যুদ্ধবিমান আকাশে কসরত দেখায়। কসরত দেখায় সরং অ্যারোবেটিক টিমও।

 

 

ভারতীয় বায়ুসেনায় রাফালের অন্তর্ভুক্তি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার সকালেই দিল্লিতে আসেন ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরঁস পার্লি। সেখানেই তাঁকে ‘গার্ড অফ অনার’ দেওয়া হয়। তারপরেই আম্বালার উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ ও পার্লি। 

 

ভারত সরকার মোট ৩৬টি রাফালের বরাত দিয়েছে ফ্রান্সকে। এর মধ্যে ৬টি বিমান ব্যবহার করা হবে প্রশিক্ষণের জন্য। যদিও যুদ্ধেও তা ব্যবহার করা যাবে। এই ছটি বিমানে দুটি করে আসন থাকবে। রাফালের প্রথম স্কোয়াড্রন যেমন ঠাঁই পেয়েছে আম্বালায়, তেমন পরের ক্সোয়াড্রনের জায়গা হবে পশ্চিমবঙ্গের হাসিমারায়। দ্বিতীয় ব্যাচের আরও পাঁচ রাফাল আসছে আগামী নভেম্বর মাসে। ২০২১-এর শেষের মধ্যে মোট ৩৬টি রাফাল এসে যাওয়ার কথা ভারতে। ২০১৬ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর এনডিএ সরকার ফ্রান্সের দাসোল এভিয়েশনের সঙ্গে ৩৬টি রাফাল কেনার ব্য়পারে চুক্তিবদ্ধ হয়। এর জন্যে বরাদ্দ হয় ৫৯ হাজার কোটি টাকা।

 

 ফরাসি রাষ্ট্রদূত ইম্যানুয়েল লেনেঁ, ফরাসি বায়ুসেনার উপ-প্রধান এয়ার জেনারেল এরিক উতুলে সহ শীর্ষ আধিকারিকরাও এদিনের অনুষ্ঠানে অংশ নেন। উপস্থিত ছিলেন রাফাল নির্মাণকারী সংস্থা দাসোল এভিয়েশনের সিইও তথা চেয়ারম্যান এরিক ত্রাপিয়ে, ক্ষেপণান্ত্র নির্মাতা এমবিডিএ-র সিইও এরিক বেরঁজে সহ ফরাসি প্রতিরক্ষা শিল্পের সঙ্গে যুক্ত একাধিক কর্তারা। অনুষ্ঠান শেষে ফরাসি ও ভারতীয় প্রতিনিধিদলের মধ্য়ে একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হয়।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios