শনিবারই কংগ্রেসের সভাপতির নির্বাচনের কাজ শেষ করে ফেলতে চায় কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটি। সূত্রের খবর,  শুক্রবার কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে একটি বৈঠকে রাহুল গান্ধি বলেন, রাজ্যের কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে তবেই নতুন কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচন করা উচিত। 

প্রসঙ্গত, এবারের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের খারাপ ফলের দায়ভার মাথায় নিয়ে আগেই কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন রাহুল গান্ধী। তারপর থেকে কংগ্রেসের সভাপতির পদ কার্যত শূন্যই পড়ে রয়েছে। শুক্রবারের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, কংগ্রেসের রাজ্য ইউনিটের আইনসভা দলের নেতাদেরও নতুন দলের সভাপতি নিয়োগের পরামর্শ প্রদানের জন্যে আমন্ত্রণ জানানো হবে। 

জানা গিয়েছে, কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের পর গত দুই দশকে এই প্রথমবার গান্ধী পরিবারের বাইরে কেউ, দলের সভাপতি হতে পারেন বলে একাধিক মহলে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। আপাতত কংগ্রেসের সম্ভাব্য সভাপতির নাম হিসাবে উঠে আসছে বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা মুকুল ওয়াসনিক-এর নাম। মনে করা হচ্ছে কংগ্রেসের সাংগঠনিক নির্বাচন পর্যন্ত ওই পদের দায়ভার সামলাবেন তিনি।

ভারতের সবচেয়ে প্রাচীন রাজনৈতিক দলের সভাপতির দায়িত্ব এর আগে গান্ধী পরিবারের সকলেই সামলে এসেছেন। এই প্রথম গান্ধী পরিবারের বাইরে কেউ কংগ্রেস সভাপতির আসনে বসতে পারেন-এই নিয়েই  শুরু হয়েছে জল্পনা।