প্রধানমন্ত্রীর শপথের পরের দিনই খারাপ খবর শোনাল রিলায়েন্স জিও। এক জাতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে , একসঙ্গে ৫ হাজার কর্মী ছাঁটাই করতে চলেছে রিলায়েন্স জিও।  

এই ৫০০০ হাজার কর্মীর মধ্যে বেশিরভাগই কনট্র্যাকচুয়াল। তবে স্থায়ী কর্মীদেরও ছাঁটাই করবে মুকেশ অম্বানীর কোম্পানি। সারা দেশে এই সংস্থার স্থায়ী কর্মীর সংখ্যা ১৫ থেকে ২০ হাজার। জানা গিয়েছে তার মধ্যে ৫০০ থেকে ৬০০ জন স্থায়ী কর্মীদের ছাঁটাই করা হবে। 

একদিকে এত স্থায়ী কর্মী। আর অন্যদিকে কনট্র্যাকচুয়ালেও রয়েছে অসংখ্য কর্মী। সেই কর্মী সংখ্যা কমানোর জন্যই এই গণ ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিও। 

মুকেশ অম্বানীর সংস্থা যে দেশের বৃহত্তম টেলিকম সংস্থা, সে ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নে। জিও এনেই পুরো টেলিকম দুনিয়াতে ঝড় তুলেছিলেন অম্বানী। অন্যান্য সংস্থাগুলিও জিও-র জন্যই নিজেদের প্ল্যানগুলির দাম কমিয়েছিল। কিন্তু সেই জিও-ও একসঙ্গে এত লোক ছাঁটাই করছে! 

এই গণ ছাঁটাইয়ের পিছনে কারণ হিসেবে জানা গিয়েছে, বিগত কয়েক মাসে জিও-র আয়ের হার বেশ খানিকটা কমেছে। আর সংস্থা চালানোর খরচ বেড়েছে ৮ শতাংশ। তাই কর্মীদের পিছনে খরচ কমাতে কর্মীদেরই ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশের বৃহত্তন টেলিকম  সংস্থা। 

জানা গিয়েছে যাঁদের ছাঁটাই করা হচ্ছে, তাঁদের বেশির ভাগই কাস্টমার কেয়ার দফতরের সঙ্গে যুক্ত। এছাড়াও রয়েছে হিউম্যান রিসোর্স, অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ফিন্য়ান্স, নেটওয়ার্ক বিভাগের কর্মীরা।