বৃহস্পতিবার দুদিনের জন্য ফ্রান্স সফরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্যারিসের চার্লস ডি গল বিমানবন্দরে মোদীকে স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী ভারতীয়রা।  এদিন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যান্য়ুয়েল মাঁকর-এর সঙ্গে ম্যারাথন বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সূত্রের খবর প্রেসিডেন্ট মাঁকরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদীর একাধিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে, যার মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য হল কাশ্মীর ইস্যু। কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে পাকিস্তান ভারতের ওপর চাপ বাড়াতে আন্ত র্জাতিক মহলে যে ধরণের কূটনৈতিক প্রচার চালাচ্ছে, সেই বিষয়েও আলেচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। 

 

এদিন একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করে ফরাসি প্রেসিডেন্ট মাঁকর বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁকে জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়ে ভারতের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন এবং প্রেসিডেন্ট মাঁকর তাঁকে বলেছেন, এই বিষয়ে ভারত এবং পাকিস্তানকেই একটা সমাধান সূত্র খুঁজে বের করতে হবে। সেইসঙ্গে তিনি আরও বলেন, কাশ্মীর প্রসঙ্গে কোনও তৃতীয় পক্ষের এই বিষয়ে নাক গলানো বা হিংসায় উস্কানি দেওয়া উচিত নয়। প্রেসিডেন্ট মাঁকর আরও বলেন, এই অঞ্চলে শান্তি বজায় রাখা খুবই প্রয়োজন এবং মানবাধিকার রক্ষা করাও প্রয়োজন। 

তিনি আরও বলেন যে, তিনি ক'দিন বাদে পাক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও এই বিষয়ে কথা বলবেন এবং তাঁকে বোঝাবেন কাশ্মীর ইস্যুতে দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে আলোচনা করার কথাও তিনি বলবেন বলে জানিয়েছেন।  প্রেসিডিন্ট এদিন আরও ঘোষণা করেন, আগামী মাসে ফ্রান্স প্রথম দফায় ৩৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান ভারতের হতে তুলে দেবে।