সারাদেশে ডেঙ্গুর মশা যেভাবে ধীরে ধীরে থাবা বসাচ্ছে তাতে করে বিশেষজ্ঞদের কপালে ভাঁজ পড়েছে। ডেঙ্গুর মশা নিধনে ইতিমধ্যে নানারকম উপায় অবলম্বন করা হচ্ছে। কিন্তু সম্প্রতি গবেষকরা এমন এক সুগন্ধীযুক্ত মলিকিউল আবিষ্কার করেছেন, যার সাহায্যে ডেঙ্গু ও অন্যান্য রোগ-সৃষ্টিকারী মশা নিধনে বিশেষভাবে কার্যকরী। 

ক্রান্তীয় দেশগুলিতে মশার কামড়ে ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া ও চিকুনগুনিয়ার মতো  একাধিক রোগের প্রদুর্ভাব দেখা দেয়। এর অন্যতম কারণ হল, ক্রান্তীয় দেশের তাপমাত্রা মশার প্রজনন এবং সংক্রমণের পক্ষে অত্যন্ত সহায়ক। মশা দ্বারা বাহিত রোগগলুলির মধ্যে প্রতি বছর প্রায় ৩৯০ মিলিয়ন মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। তাই ডেঙ্গু এড়াতে মশারির ব্যবহার বিশেষ উল্লেখযোগ্য। 

সম্প্রতি পুণের ন্যাশনাল কেমিকেল ল্যাবরেটরির বিজ্ঞানীরা এমন একধরণের মশা মারার ওষুধ আবিষ্কার করেছেন, যা অত্যন্ত সুগন্ধী একটি দ্রব্য। এর মধ্যে যে কম্পাউন্ড ব্যবহার করা হয়েছে তা প্রাকৃতিক উপাদান দিয়েই তৈরি। এর মধ্যে ব্যবহার করা হয়েছে আঙুরের নির্যাস। এর আগে এটি অন্যান্য কীট- পতঙ্গের ওপর প্রয়োগ করে খুব ভাল ফল পাওয়া গিয়েছে। 

মশা নাশক এই মলিকিউল আবিষ্কারের খবর ইতিমধ্যেই একাধিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি এই পণ্যটির বিপণনের জন্য বেশকিছু কোম্পানীর সঙ্গে কথা বলা শুরু করেছে।