অযোধ্যায়  বিতর্কিত জমি মামলায় রায় বের হওয়ার আগে শনিবার নিরাপত্তার চাদরে মুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ভারতের বিভিন্ন এলাকাকে। জারি করা হয়েছে সতর্কতা।  উত্তর প্রদেশে সব থেকে নিরাপত্তা সব থেকে বেশি জোরদার করা হয়েছে। 


দেশ জুড়ে নিরাপত্তা

যে কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে দেশ জুড়ে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।  দেশের স্পর্শকাতর অঞ্চলগুলিতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। দেশ জুড়ে চার হাজার আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। বম্ব স্কোয়ারের ৩০ জন আধিকারিরকে  মামলার রায়ের গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে নিয়োগ করা হয়েছে। বিশেষ করে বিভিন্ন ধর্মীয় এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। রাস্তায় মোতায়েন করা হয়েছে নিরাপত্তা রক্ষী।

উত্তরপ্রদেশ ও দেশের বিভিন্ন এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি 

উত্তরপ্রদেশ , জম্মু ও কাশ্মীর  এবং গোয়া জুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এছাড়া মধ্যপ্রদেশর ভোপাল, কর্ণাটকের বেঙ্গালুরু ও রাজস্থানের জয়পুরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এর ফলে ১৪৪ ধারা জারি করা এলাকায় চার জনের বেশি ব্যক্তি কোনও জমায়েত করতে পারবেন না। 

বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান 
শনিবার নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, জম্মু ও কাশ্মীর, কর্ণাটক ও দিল্লির স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উত্তরপ্রদেশ সরকার সোমবার পর্যন্ত বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

বন্ধ মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা 
শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদি প্রয়োজন হয়, অযোধ্যায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হতে পারে বলে উত্তরপ্রদেশের প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে। 

পরিস্থিতি নজরে রাখতে ক্যামেরা ড্রোনের ব্যবহার 
মুম্বইয়ের পরিস্থিতি নজর রাখতে ক্যামেরা ও ড্রোনের ব্যবহার করা হবে মুম্বইয়ে। মুম্বইয়ের বিভিন্ন এলাকায় পাঁচ হাজার সিসিটিভি ক্যামেরা সক্রিয় করা হয়েছে। মুম্বই পুলিশ পরিস্থিতি নজরে রাখতে ড্রোন ব্যবহার করবে বলে জানা গিয়েছে।৪০ হাজার মুম্বইয় পুলিশের পাশাপাশি আরসিপি, এসআরপিএফ, ব়্যাফকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।