প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী পি চিদম্বরের সঙ্গে তিহার জেলে গিয়ে দেখা করলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ও কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী।  আইএনএক্স মিডিয়া দর্নীতি তদন্তের মামলায় গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে দিল্লির এই জেলেই রয়েছেন দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। দল যে চিদম্বরেমর পাশেই রয়েছে সেই বার্তা দিতেই মনমোহন ও সনিয়ার তিহারে আগমন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। 

সনিয়া, মনমোহনের সাক্ষাতের পরই এদিন ট্যুইট করেন চিদম্বরম।  দল পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ জানান। কংগ্রেসের মতই তাকে আরও সাহসী হতে হবে সেকথাও লেখেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। তার হয়ে অবশ্য ট্যুইট করেন পরিবারের সদস্যরা। 

গত সপ্তহেই চিদম্বরমের সঙ্গে দেখা করতে তিহার জেলে যান গুলাম নবি আজাদ এবং আহমেদ প্যাটেল। ২০০৭ সালে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে আইএনএক্স মিডিয়া সংস্থায় বিদেশি তহবিলের এক বিশাল আদান-প্রদানের সুবিধা করে দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়। অভিযোগ তাঁর ছেলে কার্তি চিদাম্বরমের অনুরোধেই ওই কাজ করেন তিনি। পরিবর্তে আইএনএক্স মিডিয়া সংস্থার কাছ থেকে বিশাল অঙ্কের ঘুষ পান কার্তি চিদম্বরম।

চিদম্বরমের নাম উল্লেখ করেছেন আইএনএক্স-এর প্রতিষ্ঠাতা পিটার ও ইন্দ্রানি মুখোপাধ্যায়। বর্তমানে ইন্দ্রানির কন্যা শিনা বোরা খুনে যুক্ত থাকার অভিযোগে দুজনেই মুম্বইয়ের জেলে রয়েছেন। 

সোমবার চিদম্বরম পা দিলেন ৭৪ বছরে। জেলে তার স্বাস্থ্য ভাল আছে বলেই জানিয়েছে একটি সংবাদসংস্থা। অর্থনীতি থেকে একাধিক বিষয়ে এদিন ট্যুইট করেই কেন্দ্রকে আক্রমণ করেছেন চিদম্বরম।