'এমনটা আর চলতে দেওয়া যাবে না, এর জবাব চাই'- এনকেফালাইটিসে আক্রান্ত হয়ে শিশু মৃত্যুর প্রসঙ্গে এমনটাই দাবি করল সুপ্রিম কোর্ট। এনকেফালাইটিস-এ শিশু মৃত্যুর প্রসঙ্গে বিহার সরকারের কাছে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। 

সুপ্রিম কোর্টের দাবি, শিশুমৃত্যু রুখতে বিহার সরকার কী কী ভুমিকা নিয়েছে তা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে জানাতে হবে শীর্ষ আদালতকে। এনকেফালাইটিসের জেরে দিনে দিনে রাজ্যে মৃত্যুমিছিল যেভাবে বাড়ছে তাতে যথেষ্ট উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। তাই আজ পর্যন্ত এনসেফালাইটিসের জেরে যেভাবে একের পর এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে তারও ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে বিহার সরকারের কাছে।

ইতিমধ্যেই এনকেফালাইটিসে জেরে বিহার যেভাবে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিল তাতে, বারংবার প্রশাসনিক গাফিলতির অভিযোগ উঠেছিল। তবে শুধু প্রশাসনই নয়, চিকিৎসা পরিষেবার উপরেও বারংবার গাফিলতির অভিযোগ তুলেছিলেন মৃত রোগীর পরিবারের লোকরাও। এরপরই অবশ্য স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে বরখাস্ত করা হয় একজন সিনিয়র চিকিৎসককে।

কিন্তু এর পরও বিহার সরকারের তরফ থেকে শীর্ষ আদালতের কাছে দাবি করা হয় যে, এনকেফালাইটিস ছড়িয়ে পড়ার পর সরকারের পক্ষ থেকে যাবতায় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এমনকী এও দাবি করা হয় যে, এখন পরিস্থিতি সম্পুর্ণ নিয়ন্ত্রণে। তবে এবার তা খতিয়ে দেখতেই রাজ্য়ের তরফ থেকে রিপোর্ট চেয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সমস্ত স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওষুধ, চিকিৎসার সরঞ্জাম, পুষ্টি ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা নিয়ে নীতিশ সরকারের কাছ থেকে লিখিত রিপোর্ট দাবি করেছে সুপ্রিম কোর্ট।