ফের পাকিস্তানি জঙ্গিরা জম্মু কাশ্মীরে বড় সড় হামলার ছক কষেছে। কেন্দ্রীয় সরকারের একটি বিশ্বাসযোগ্য সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে। আর এই কারণেই অতি সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে উপত্যকায় বাড়তি ১০০ কোম্পানি আধাসামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

সম্প্রতি, দুইদিনের সফরে কাশ্মীরে গিয়েছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। সেখানে কাউন্টার টেরোরিজম গ্রিড বা সন্ত্রাসবাদ বিরোধী বাহিনীর অফিসারদের সঙ্গে তাঁর বৈঠক হয়। সেখানেই পাকিস্তানি জঙ্গিদের আরও এক হামলার গোয়েন্দা তথ্য দেওয়া হয় ডোভালকে। এরপরই দিল্লি ফিরে এসে বাড়তি নিরাপত্তার সুপারিশ করেন তিনি।   

পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার আগেও সেই সংক্রান্ত তথ্য ভাহতীয় গোয়েন্দাদের কাছে ছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল। তাকে সেভাবে পাত্তা দেওয়া হয়নি। হামলার হুমকির মধ্যেই সেনাদের স্থানান্তরিত করা হচ্ছিল। আর তার মধ্য়েই সেনা কনভয়কেই নিশানা করেছিল জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিরা। সেই আত্মঘাতি হামলায় প্রাণ যায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের। তারপর বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইক করে উপযুক্ত জবাব দিলেও, এইবার আগে থেকেই সতর্ক হতে চাইছে ভারত। রোগ সাড়ানোর থেকে প্রতিরোধই ভাল উপায় - এটাই অজিত ডোভালের মত।