সরকারি বিমান বন্দর বিক্রির প্রতিবাদ জানালেন দমদমের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সৌগত রায়। লোকসভায় একটি বিতর্কে অংশ নিয়ে অধ্যাপক সৌগত রায় জানিয়েছেন দেশের অর্থনীতিকে বাঁচানোর জন্য রাষ্ট্রাত্ত্ব সম্পত্তি বিক্রির কোনও প্রয়োজন নেই। তারপরিবর্তে যদি মনরেগার মত প্রকল্পগুলিতে বেশি মনোযোগ দেওয়া যায় তাহলে কাটতে পারে অর্থনৈতিক সংকট। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর কাছে তিনি আবেদন করেন অর্থনীতির অন্ধকূপ থেকে দেশের মানুষকে উদ্ধারের জন্য যেন একটি সুর্দিষ্ট পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। 

৫ ট্রিলিয়ন অর্থনীতির স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু বর্তমান রিপোর্ট দেশের অর্থনীতি তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। চার দশকের রেকর্ড তৈরি করে দেশের জিডিপি মাইনাস ২৮.৯ শতাংশে পৌছেছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে গত মার্চ মাস থেকেই দেশের কঠোরভাবে লকডাউন জারি ছিল। আর সেই কারণে স্তব্ধ হয়ে গেছে দেশের অর্থনীতি। তেমনই দাবি করছে কেন্দ্র। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতির হাত থেকে  বাঁচতে বেশ কিছু রাষ্ট্রয়াত্ত্ব সংস্থা বিক্রির দিকে ঝুঁকছে মোদী সরকার। তারই অঙ্গ হল বিমান বন্দরের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়া। কিন্তু এই প্রক্রিয়ায় প্রথম থেকেই বাধা দিয়ে আসছে বিরোধীরা। যার মধ্যে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসও। 

উল্টো এদিন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সৌগত রায় বলছেন মনরেগার মত প্রকল্পগুলিতে আরও বেশিকরে বরাদ্দা বাড়ালে সমস্যা কিছুটা হলেও সমাধান হতে পারে। কংগ্রেসও মনরেগা প্রকল্পে আর্থিক বরাদ্দ বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছিল। লকডাউনের সময়ই কেন্দ্রী অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের জন্য কুড়ি লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। আর সেই সময়ই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী মনরেগা প্রকল্পে অতিরিক্ত ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।  আর সেই কারণেই কংগ্রেসের আমলে শুরু হয়ওয়া মনরেগা প্রকল্পে অতিরিক্ত ৬৬ শতাংশ ব্যয় বরাদ্দ বৃদ্ধি হয়েছিল। 

অন্যদিকে মনরেগা প্রকল্পের এই রাজ্য অনেকটা সুবেধেজনক জায়গায় রয়েছে বলে দাবি করে তৃণমূল কংগ্রেস। কয়েক মাস আগেই তৃণমূল নেতা ডেরেক ওব্রায়ন জানিয়েছিলেন গুজরাতের থেকে মনরেগা প্রকল্পে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস। আর মনরেগা প্রকল্পকে দুর্বল করার জন্য তৃণমূল কংগ্রেস বরাবরই দায়ি করে কেন্দ্রীয় সরকারকে।যদিও এই রাজ্যের বিরোধীদের একটা অংশের দাবি মনরেগা প্রকল্পের টাকা তছরুপের জন্য তৃণমূল কংগ্রসেকেই নিশানা করে। সবমিলিয়ে মনরেগা প্রকল্পকেই হাতিয়ার করে মরিয়া একটা চেষ্টা চালাচ্ছে তৃণমূল। কারণ নির্মলা সীতারমন এই প্রকল্পের জন্য অতিরিক্ত ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ বৃদ্ধি ঘোষণার পরেও সমালোচনা থামায়নি রাজ্য তৃণমূল। তারা দাবি করেছিল অতিরিক্ত অর্থের অধিকাংশই গত বছরের বকেয়া।