কৃষি আইনের প্রতিবাদে কৃষক বিক্ষোভ ক্রমশই দানা বাঁধছে। রাজধানীর বুকে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবাদ দেখান হল।  সোমবার সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ  দিল্লির ইন্ডিয়া গেটের সামনে নতুন কৃষি আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখায় একদল প্রতিবাদী। তারা একটি ট্রাক্টর নিয়ে আসে। ইন্ডিয়ার গেটের সামনে সেটিতে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। পরে দমকল বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেআনে। বিক্ষোভকারীদের দাবি নতুন কৃষি আইন ভারতীয় কৃষকদের কাছে মৃত্যুর পরোয়ানা। একটি কৃষকের কুশপুতুলও নিয়ে তারা প্রতিবাদ দেখান। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে ২০-২৫ জনের একটি দল বিক্ষোভ দেখায়। তারাই ট্রাক্টরটি নিয়ে আসে। ইন্ডিয়াক গেটের সামনে ট্রাক্টরটি ফেলে আগুব জ্বালিয়ে দেয়। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। অভিযুক্তরা সকলেই পলাতক বলেও জানিয়েছে প্রশাসন। 

গত রবিবার রাজ্যসভায় তুমুল বিত্কের মধ্যে দিয়ে পাশ হয় কৃষি বিল। শনিবার রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ কৃষি বিলে সই করেন। তারপর থেকেই বিলটি আইনে পরিণত হয়েছে। কিন্তু একসপ্তাহ পরেও কৃষি আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।  সংসদে বিল পাশ হওয়ার পরেই পঞ্জাব, হরিয়ানাসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে অসন্তোষ দেখিয়েছিলেন কৃষকরা। ভারত বনধেরও ডাক দেওয়া হয়েছে। বিক্ষিপ্তভাবে রেল রোকো আন্দোলনও হয়েছে। বিলের প্রতিবাদে সরব হয়েছে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। কৃষি বিলের প্রতিবাদ জানিয়েছেই বিজেপি সঙ্গ ছেড়েছে দীর্ঘ দিনের জোটসঙ্গে শিরোমণি অকালি দল। কিন্তু চলতি সপ্তাহের প্রথম দিন থেকে আবারও প্রকট হচ্ছে কৃষি বিক্ষোভ। 

সোমবার বিজেপি শাসিত রাজ্য কর্ণাটকের কৃষকরা বনধের ডাক দিয়েছিল। তাতে রীতিমত সাড়া পড়েছে। করোনাভাইরাসের সংক্রণের কারণে এমনিতেই রাস্তা যানবাহনের সংখ্যা কিছুটা কম। তারপর কৃষকদের ডাকা বনধে রীতিমত শুনশান বেঙ্গালুরুর রাস্তাঘাট। ব্যাহত হয়েছে বাস চলাচলও। আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে সকাল থেকেই রাস্তায় মোতায়েন রয়েছে প্রচুর পুলিশ। অন্যদিকে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং কৃষি আইনের প্রতিবাদে কৃষক বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।