উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিরুদ্ধে বাজে ব্যবহারের অভিযোগ এনে এবার পাল্টা নিজের অস্বস্তি বাড়ালেন প্রিয়াঙ্কা। গতকালই নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে ইউপি পুলিশ তাঁকে হেনস্থা করেছে বলে অভিযোগ এনেছিলেন কংগ্রেস নেত্রী। যদিও উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সরকারি বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে এরকম কোনও ঘটনাই হয়নি। এমনকী প্রিয়াঙ্কা হেনস্থার কংগ্রেস যে ভিডিযো প্রকাশ করেছে,তাতেও ঘাড় ধরে টানার কোনও ছবি দেখা যাচ্ছে না। ফলে যোগীর পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ব্যাকফুটে চলে এল কংগ্রেস।

Here - Priyanka Vadra is being stopped by TWO women police personnel in a very DIGNIFIED way. She "PUSHES" them aside and FORCES her way.

Not sure how #PriyankaGandhi is playing victim! pic.twitter.com/wotmDwj08m

— Gunja Kapoor (@gunjakapoor) December 28, 2019 

গাঁধী পরিবারের সুরক্ষা নিয়ে কদিন আগেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে কংগ্রেস। হাইকমান্ডের তরফে বলা হয়েছে,ক্ষমতায় না থাকায় বিরোধী কংগ্রেস নেতাদের সুরক্ষা কমিয়ে দিয়েছে মোদী সরকার। বিশেষ করে নিশানা করা হয়েছে গান্ধি পরিবারের সদস্যদের। আগে স্পেশ্যাল প্রোটেকশন গ্রুপ-এর সুরক্ষা দেওয়া হলেও তা তুলে নেওয়া হয়েছে। সংসদে যার উত্তরও দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি জানান, কংগ্রেস মানেই গাঁধী পরিবার নয়। এটা ভাবার সময় এসেছে। তবে বিরোধীর অভিযোগ অস্বীকার করে অমিতশাহ জানান, রাহুল গাঁধীদের সুরক্ষা কমানো হয়নি। কিন্তু দেশের প্রধানমন্ত্রীর মতো সুরক্ষা তাদের দিতে পারবে না সরকার।

শনিবার উত্তরপ্রদেশে প্রিয়াঙ্কা গাঁধী ইউপি পুলিশের বিরুদ্ধে হেনস্থার কথা বলতেই ফের গান্ধি পরিবারের সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। একজন মহিলা পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন প্রিযাঙ্কা। যদিও ওই মহিলা পুলিশ কর্মী অর্চনা সিং জানান, ঘাড় ধরে টানার মতো কোনও ঘটনাই ঘটেনি। হঠাৎ নিজের কর্মসূচি পরিবর্তন করেন কেংগ্রেস নেত্রী। যেহেতু ওনার জন্য় বিশেষ সুরক্ষা বলয় রয়েছে, তাই ওনাকে রাস্তায় আটকানো হয়। বার বার গন্তব্য় সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলেও কিছু বলেননি তিনি। ওনার নিরাপত্তার কথা ভেবেই ওনাকে আটকানো হয়। কোনও নেত্রী এভাবে রাস্তায় হাঁটলে পথচারীদেরও সমস্যা হয়। তাই ওনার কাছে বার বার অনুরোধ করা হয়। কিন্তু কিছু না বলেই রাস্তায় হাঁটতে শুরু করেন প্রিয়াঙ্কা। এমনকী আটকাতে গেলে কংগ্রেস কর্মীদের ধাক্কায় অর্চনাও পড়ে যান।

Statement of Police Officer Archana Singh Ji after false allegations by @priyankagandhi

She is a India's daughter not a fake Gandhi Family like You People..

Shame on #PriyankaGandhi for making a false accusation against an honest police officer !#IStandWithArchanaSingh pic.twitter.com/lhspUBfJpr

— Vinita Hindustani🇮🇳 (@Being_Vinita) December 29, 2019  

 

যদিও কংগ্রেস নেত্রী বলেন,ইউপি পুলিশের ধাক্কাতে তিনি নাকি পড়ে যান। প্রাক্তন আইএএস কর্তার বাড়ি যেতে গেলে তাঁকে ঘার ধরে টানা হয়। এই ঘটনাই প্রমাণ করে উত্তরপ্রদেশে আইনশৃঙ্খলার কী অবস্থা হয়েছে। অর্চনা যে মথ্যে বলছেন না তা কংগ্রেসের প্রকাশিত ভিডিয়ো থেকেই দেখা যাচ্ছে। যেখানে বার বার ইউপি পুলিশের অনুরোধ উপেক্ষা করছেন প্রিয়াঙ্কা। একবার তাঁর মাফলারে কোনওভাবে টান পরলেও তাঁকে ঘার ধরে টানার কোনও ছবি দেকা যাচ্ছে না।