উত্তরপ্রদেশ পুলিশ এবার দাগী অপরাধীর তকমা দিতে চলেছেন সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খানকে। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সূত্রে খবর সমাজবাদী পার্টি নেতা তথা মন্ত্রী আজম খানের বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত ৭২টি মামলা দায়ের হয়েছে। জানা গিয়েছে ভারতীয় দণ্ডবিধি এবং ফৌজদারি দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

এদিন রামপুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জনেয়া কুমার সিং জানিয়েছন, মন্ত্রী আজম খানের বিরুদ্ধে আজ পর্যন্ত যতরকমের অভিযোগ দায়ের হয়েছে তার বেশিরভাগই হয় বেআইনিভাবে জমি দখল এবং চুরির। আর সেই কারণেই তাঁদের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, এবার আজম খানকে 'দাগী অপরাধী'র তকমা দেওয়া হয়েছে। 

তিনি আরও জানিয়েছেন যে, আজম খানের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া ৭২টি মামলার মধ্যে ১৫টি মামলায় পুলিশ ইতিমধ্যেই চার্জশিট গঠন করেছে। বাকি অভিযোগ গুলিও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবার তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া সর্বশেষ মামলা দায়ের করা হয়েছিল একটি জমি দখলের অভিযোগে। এমনকি বেশ কয়েকজন কৃষকও আজম খানের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানা গিয়েছে, এমনকি বই ও সিংহের মূর্তি চুরির অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

বিজেপির রমা দেবীকে উদ্দেশ্য করে সংসদে আপত্তিকর মন্তব্য করার জন্য সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছিলেন সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খান। তাঁর সেই মন্তব্যকে ঘিরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল নির্বিশেষে উঠেছিল সমালোচনার ঝড়। পরে অবশ্য সংসদে দাঁড়িয়ে নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি।