বিয়েবাড়ির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। আর সেটি এশিয়ানেট নিউজ বাংলার পক্ষ থেকে আমরাও আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নিচ্ছি। ভিডিওটি প্রথমে দেখলে নিছকই একটি ভাইরাল ভিডিও-র কথাই মনে করিয়ে দেবে-- যেটি কোনও কারণ ছাড়াই আপনাকে হাসাবে। কিন্তু এই ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উঠে এসেছে একাধিক তত্ব একাধিক মতামত। কিন্তু যিনি শেয়ার করেছিলেন এই ভিডিওটি তিনিই তেমন গভীরে গিয়ে কিছুই ভাবেননি। কারণ ভিডিওটির সঙ্গে তাঁরা লেখা ক্যাপশন তেমন কথাই বলছে। 

ভিডিওটি একটি বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানে। যেখানে আরও পাঁচটি বিয়েবাড়ির মতই একজন স্টিল ফোটোগ্রাফার অনুষ্ঠান মঞ্চে দাঁড়িয়েই বরকনের ছবি তুলছিলেন। প্রথমে দুজনের ছবি একসঙ্গে তুলছেন। তারপর একা কনের ছবি তোলার জন্য নবদম্পতিকে আলাদা করে দেন। তারপর একের পর এক কনের ছবি তুলতে থাকেন। আর সেই ছবি তুলতে গিয়েই রীতিমত ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়েন কনের। আর সেই সময়ই ঘটে বিপত্তি। 

কনের সঙ্গে ফোটোগ্রাফারের এই ঘনিষ্ঠতা মেনে নিতে পারেননি বর। আর অনুষ্ঠান মঞ্চে দাঁড়িয়েই সপাটে চড় কষিয়ে দেন তিনি। তাতে রীতিমত হতবাক হয়ে যান ফোটোগ্রাফার। তবে দেখার মত ছিল কনের প্রতিক্রিয়া। অনুষ্ঠান মঞ্চেই হাসতে হাসতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। হাসি যেন বাঁধ ভাঙা। উচ্চস্বরে হেসে ওঠেন তিনি। রেনুকা মোহন নামে এক নেট ব্যবহারকারী তাঁর পোস্টে লিখেছেন, আমি কেবল এই কোনেকেই পছন্দ করি। আর নেটিজেনদের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি লিখেছেন, তিনি যখন প্রথমবার এই ভিডিওটি দেখেছিলেন তখন তিনি শুধুই হেসেঠছিলেন। এখনও তিনি এটি দেখে হাসেন। পাশাপাশি তিনি বলেছেন সবসময় সবকিছুর কারণ খোঁজার প্রয়োজন নেই। 

এই ভিডিওটি ৬৫ হাজারেও বেশি লাইক পেয়েছে। আর ১৫ লক্ষ বার রিট্যুইট হয়েছে। তবে অনেকেই বরের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তাঁকে হিংসুটে আর সন্দেহবাতিক বলে দাবি করেছেন। তবে অধিকাংশ নেটিজেনই মজার ভিডিও বলেই এটিকে চিহ্নিত করেছেন।